চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাদিয়া মুরাদের নোবেল পুরস্কার নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ট্রাম্প

‘তুমি তো নোবেল পেয়েছো। এটা অবিশ্বাস্য যে তুমি নোবেল পেয়েছো, তারা তোমাকে কী কারণে নোবেল দিয়েছে?’ জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস-এর নির্যাতনের শিকার ও নোবেল বিজয়ী ইয়াজিদি নারী নাদিয়া মুরাদকে এভাবেই প্রশ্ন করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বুধবার হোয়াইট হাউসে নোবেল বিজয়ী নাদিয়া মুরাদ সাক্ষাৎ করতে গেলে ট্রাম্প এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

ইরাকে ইয়াজিদিদের সাহায্য করতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাত করতে যান নাদিয়া মুরাদ। তার সঙ্গে যান আইএসের হাতে নির্যাতনের পর পালিয়ে আসা আরো কয়েকজন।

সংবাদমাধ্যম এপি’র বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ‘দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’।

বিজ্ঞাপন

ট্রাম্পের এমন প্রশ্নের উত্তরে নাদিয়া মুরাদ বলেন, ‘আমার সঙ্গে এতকিছু ঘটার পরও আমি ভেঙে পড়িনি। আমি ভুলে যাইনি। আমি সবার কাছে পরিষ্কার করেছি, জঙ্গি সংগঠন আইএস হাজারেরও বেশি ইয়াজিদি নারীদের ওপর ধর্ষণ ও নির্যাতন চালিয়েছে। এটা শুধু এক পরিবারের জন্য নয়। দয়া করে কিছু করুন।’

ইয়াজিদিদের নিরাপদে ফিরিয়ে নিতে ইরাক এবং কুর্দিশ সরকারকে চাপ দিতে সাহায্যের কথা বললে নাদিয়া মুরাদকে ট্রাম্প বলেন, ‘আইএস তো চলে গেছে, এখন ওই এলাকায় কুর্দিশ এবং কে? আমি ওই এলাকা সম্পর্কে ভালো জানি।’

২০১৪ সালে আইএস তুলে নিয়ে যাওয়ার পর ধর্ষণ থেকে শুরু করে সব ধরনের নির্মম নির্যাতন চালানো হয় ২১ বছর বয়সী ইরাকি এই নারীর ওপর। আইএসের হামলায় পরিবারের ১৮ জন সদস্যকে হারান তিনি।

আইএসের বন্দি দশা থেকে পালিয়ে আসার আগ পর্যন্ত নাদিয়া মুরাদকে জোরপূর্বক যৌন দাস হিসেবে ব্যবহার করা হয়। সেখান থেকে বেঁচে আসার পর ইয়াজিদি সম্প্রদায়ের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন নাদিয়া মুরাদ।

Bellow Post-Green View