চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাটকীয়তার পর সুপার লিগের টিকিট পেল মোহামেডান

এক নজরে সুপার লিগে যারা

২৫০ রানের লক্ষ্য ছুঁতে গিয়ে ওপেনিং জুটিতেই মোহামেডান তুলে ফেলল ৭৭। দুই উইকেট হারিয়ে দেড়শ পার করা দলটিই পড়ন্ত বিকেলে পড়ল হারের শঙ্কায়। বিকেএসপির বিপক্ষে মোহামেডানের বোলাররা এদিন ‘ব্যাটসম্যান’ হয়ে উঠতে না পারলে তাদের প্রিমিয়ার লিগ শেষ হয়ে যেত এ ম্যাচের পরই।

অনেক নাটকীয়তার পর ১ উইকেটে জিতে সেরা ছয়ে ঠাঁই করে নিয়েছে মোহামেডান। ২২৬ রানে ৮ উইকেট হারানোর পর কাজী অনিক ও সাকলাইন সজীবের ব্যাটে ১ বল আগে জয়ে নোঙর করে আফিফ-আশরাফুলদের দল। ঐতিহ্যবাহী দলটি নবম উইকেট হারায় জয় ৬ বলে ৯ রান দূরে রেখে।

বিজ্ঞাপন

বাঁহাতি দুই টেলএন্ডারের ব্যাট থেকে আসা দুটি বাউন্ডারিতে শেষ রক্ষা হয় সাদা-কালোদের। এক বল আগে লক্ষ্যে পৌঁছায় নাদিফ চৌধুরীরা। টিকিট কাটে সেরা ছয়ের সুপার লিগ খেলার।

পাঁচ দলের সুপার লিগ নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল আগেই। অপেক্ষা ছিল একটি দলের। ষষ্ঠ দল হিসেবে সে তালিকায় নাম লেখাতে প্রতীক্ষায় ছিল মোহামেডান ও গাজী গ্রুপ। কিঞ্চিত আশা ছিল শাইনপুকুরেরও। বেলা যত গড়ায় সম্ভাবনা তত বাড়ে মোহামেডান ও গাজীর চেয়ে এক পয়েন্ট কম থাকা দলটির।

লিগপর্বের শেষদিনে মিরপুর, ফতুল্লা, বিকেএসপি তিন ভেন্যুতেই চোখ রাখতে হয়েছে সকলকে। বিকেএসপির মাঠে প্রাইম ব্যাংকের কাছে গাজীর ৩৪ রানে হেরে যাওয়ার খবর ততক্ষণে পৌঁছে গেছে মিরপুরে খেলাঘরের বিপক্ষে লড়তে থাকা শাইনপুকুরের খেলোয়াড়দের কাছে। একইসময়ে ফতুল্লায় বিকেএসপির কাছেও হারের মুখে তখন মোহামেডান।

বিজ্ঞাপন

জয়ে নাগালে চলে যাওয়ায় আশার বেলুন বড় হয় শাইনপুকুরের। তবে রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ের পর মোহামেডান জিতে যাওয়ায় স্বপ্নভঙ্গ হয় তাদের। শাইনপুকুর প্রত্যাশিত জয়টি পায় বৃষ্টি আইনে। খেলাঘরের দেয়া ১৯১ রানের লক্ষ্যে নামা দলটি ৪১ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ তোলার পর শুরু হয় বৃষ্টি। ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে তারা জেতে ১৫ রানের ব্যবধানে।

১১ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থান থেকে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ শেষ করল তারা। সমান ১২ পয়েন্ট নিয়ে সেরা ছয়ের সুপার লিগে উঠেছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। ১০ পয়েন্ট নিয়ে আটে থাকল গাজী। ৬ পয়েন্ট নবম স্থানটি খেলাঘরের।

দীর্ঘ লড়াই শেষে সুপার লিগের ছয় দল দাঁড়াল- ২০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ, ১৬ পয়েন্টে দুইয়ে আবাহনী লিমিটেড, সমান পয়েন্টে রানরেটে পিছিয়ে তিনে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব, চারে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব, পাঁচে ও ছয়ে যথাক্রমে মোহামেডান ও শেখ জামাল।

রেলিগেশনে ব্রাদার্স, বিকেএসপি, উত্তরা
পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকার সুবাদে প্রিমিয়ার লিগের নবাগত দল উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের রেলিগেশনে খেলা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল আগেই। ১১ ম্যাচে তারা জিতেছে মাত্র দুটিতে। পয়েন্ট চার। শেষ ম্যাচে মোহামেডানের কাছে হারের ফলে অবনমন এড়ানোর জন্য লড়তে হবে বিকেএসপিকে। দুই জয় ও একটি ম্যাচ টাই করে তাদের পয়েন্ট পাঁচ।

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি ও ব্রাদার্স ইউনিয়নের পয়েন্ট সমান (৬)। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে খেলাঘর জেতায় প্রিমিয়ার লিগে টিকে থাকছে তারা। ব্রাদার্স, বিকেএসপি, উত্তরার মধ্যে হবে লিগপর্ব। তিন দলের মধ্যে যারা এগিয়ে থাকবে তাদের আগামী আসরেও দেখা যাবে। বাকি দুটি দল নেমে যাবে প্রথম বিভাগে।

Bellow Post-Green View