চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নভেম্বরের ১ম সপ্তাহে ঢাবি ছাত্রলীগের হল কমিটি

চলতি বছরের নভেম্বরের ১ম সপ্তাহে সম্মেলনের মাধ্যমে ঘোষণা করা হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এক নম্বর ইউনিট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের হল কমিটি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চ্যানেল আই অনলাইনের সাথে আলাপকালে একথা বলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন।

বিজ্ঞাপন

ইতোমধ্যে নেতৃত্ব খোঁজা হচ্ছে উল্লেখ করে সভাপতি ও সম্পাদক বলেন, একবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারে এমন নেতৃত্বই বাছাই করব আমরা।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত বলেন, ‘যারা নিয়মিত ছাত্র অর্থাৎ ক্লাস রুমের সাথে যাদের ঘনিষ্ঠতা, যাদের হলে ও ক্লাসে সহপাঠীদের সাথে ভাল সম্পর্ক এবং রাজপথে পরীক্ষিত তারাই আসবে নেতৃত্বে।’

বিজ্ঞাপন

সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম বলেন, ‘ হলের সকল ক্লাব ও সহশিক্ষা কার্যক্রমের সাথে যাদের সম্পৃক্ততা, যারা শিক্ষার্থী বান্ধব ও সকল প্রকার বিতর্কের ঊর্দ্ধে তাদেরকেই বাছাই করব আমরা।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮ টি হলের হল সংসদে যারা নেতৃত্বে আছেন তারাও চেষ্টায় আছেন হল কমিটির নেতৃত্ব পেতে।

তাদের মধ্যে থেকেই নতুন নেতৃত্ব আসতে পারে কি না? জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতা বলেন, পদের জন্য লড়াই করলেও সহযোদ্ধার সাথে সুসম্পর্ক বজায় থাকে। এতে সংগঠনের গতিশীলতা বজায় থাকে। হল সংসদের ভিপি জিএস থেকেও নেতৃত্ব আসতে পারে। তবে আমরা চাই ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ। এক্ষেত্রে হল সংসদে যারা ভল কাজ করছে তাদেরকে আমরা বাছাই করব।  পাশাপাশি হল সংসদের বাইরে যারা যোগ্য ও জনপ্রিয় তারাও নেতৃত্বে আসবে।

গত বছরের ৩১ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দায়িত্বে আসেন সনজিত ও সাদ্দাম। দায়িত্ব নেওয়ার এক বছর পেরিয়ে গেলেও তারা হল কমিটি দিতে পারেন নি। এতে পদ প্রত্যাশী অনেকেই হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন চ্যানেল আই অনলাইনের কাছে।

এবিষয়ে এই দুই নেতা বলেন, আমরা চেষ্টা করেছি দ্রুততম সময়ের মধ্যেই হল কমিটি দিতে। কিন্তু অনেকগুলো ইস্যু সামনে আসায় সেটি হয় নি। এর আগের কমিটিও হল কমিটি দিতে ১৯ মাস সময় নিয়েছিল। আমরা এত দীর্ঘ করব না। আমাদের জাতীয় নির্বাচন ও ডাকসু নির্বাচনের মত বড় বড় ইস্যু সামাল দিতে হয়েছে। তাই এইটুকু দেরি হয়েছে।