চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নতুন পরিবেশে মানিয়ে নেয়ার ‘কঠিন লড়াই’

শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও মিরপুরে যথারীতি চলেছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের অনুশীলন। জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে স্কিল অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন প্রাথমিক স্কোয়াডের ক্রিকেটাররা।

লকডাউনের সময়ে একদমই মাঠে নামতে পারেননি জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। করোনা বিরতি কাটিয়ে তারা অনুশীলনে ফিরলেও কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে দিন পার করতে হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

বারবার কোভিড-১৯ টেস্ট দিতে হচ্ছে টাইগারদের। থাকতে হচ্ছে জৈব সুরক্ষা বলয়ে। এভাবে থাকা যে মোটেও সহজ নয় সেটি অকপটেই স্বীকার করলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তারপরও ‘নিউ নরমাল’ পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন জাতীয় দলের তরুণ ব্যাটসম্যান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘এটা অবশ্যই অনেক কঠিন, টেস্টের (কোভিড-১৯) কথা বলবো যে, করোনা টেস্ট দুইদিন পরপর, এই জিনিসটা একটু অস্বস্তিকর লাগে। নাকের ভেতর কিট দেয়া, পরীক্ষা করা, এ জিনিসটা আমার জন্য অস্বস্তিকর।’

‘আর কোয়ারেন্টাইনে থাকতে কারোরই ভালো লাগে না। এত নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে থাকা ভালো অনুভব করি না। কিন্তু আস্তে আস্তে মানিয়ে নিচ্ছে সবাই এবং এভাবেই অনুশীলন করতে হবে, খেলাধুলা করতে হবে। মানসিকভাবে এভাবে নিয়ে নিয়েছি। ধীরে ধীরে উপভোগ করছি।’

করোনা পরিস্থিতি বদলে দিয়েছে মানুষের জীবন। খেলোয়াড়দের ক্ষেত্রে আরও বেশি। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের তিন দফা নেয়া হয়েছে কোভিড-১৯ টেস্ট। শুক্রবার নেয়ার কথা ছিল আরেক দফা। কিন্তু সম্ভাব্য সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকায় শেষ ধাপের পরীক্ষা স্থগিত করেছে বিসিবি। হবে না অনুশীলনও।