চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দয়া করে সঞ্জয়ের অসুস্থতা নিয়ে অনুমান বন্ধ করুন: মান্যতা

সঞ্জয় দত্তের প্রাথমিক চিকিৎসা মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালেই হবে, জানিয়েছেন তার স্ত্রী মান্যতা। মঙ্গলবার সঞ্জয় দত্তের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে এক বিবৃতি দিয়েছেন তিনি।

মান্যতা বলেন, ‘জীবনে অনেক অমসৃণ ধাপ পার হতে হয়েছে সঞ্জয়ের। কিন্তু আপনাদের সমর্থনে সব কঠিন ধাপ পার করতে পেরেছেন তিনি। এজন্য আমরা আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আমরা আরেকটি পরীক্ষার সম্মুখীন হয়েছি। আমি জানি এবারও ভালোবাসা ও আন্তরিকতা নিয়ে আপনারা পাশে থাকবেন।’

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে মান্যতা জানিয়েছেন, সঞ্জয় দত্ত আপাতত দেশের বাইরে যাচ্ছেন না। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এই ব্যাপারে। এখন তিনি কোকিলাবেন হাসপাতালের অভিজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে আছেন।

বিজ্ঞাপন

মান্যতা ভক্তদেরকে অনুরোধ করেছেন সঞ্জয়ের অসুস্থতা কোন ধাপে আছে, তা নিয়ে অনুমান নির্ভর কোনো কথা না বলতে। তিনি বলেন, ‘সঞ্জয় শুধু আমার স্বামী ও আমার সন্তানদের বাবা নয়, অভিভাবক হারানো অঞ্জু ও প্রিয়ারও বাবার মতো। পরিবারের হৃদয় তিনি। আমাদের পরিবারে বড় বিপদ আসলো, তবে আমরা লড়াই করে যাব। সৃষ্টিকর্তা ও আপনাদের পাশে পেলে আমরা এই বিপদ কাটিয়ে উঠবো, জয়ী হবো।’

দুবাই থেকে সদ্য ভারতে ফেরায় বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হচ্ছে মান্যতাকে। এজন্য সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে তিনি হাসপাতালে যেতে পারছেন না। মঙ্গলবার কোকিলাবেন হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু করেছেন সঞ্জয়। হাসপাতালে রওনা দেয়ার আগে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় উপস্থিতি ভক্তদেরকে সঞ্জয় বলেন, ‘আমার জন্য প্রার্থনা করুন।’

শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কারণে ৮ আগস্ট বিকেলে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল সঞ্জয় দত্তকে। সুস্থ হয়ে গত ১০ আগস্ট বাড়িতে ফিরেছিলেন তিনি। মঙ্গলবার তিনি চিকিৎসার জন্য কাজে সাময়িক বিরতি নেয়ার কথা জানিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরপরেই জানা যায় ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। -ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস