চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘তামিম’ হয়ে তামিমের ফেরা

৭৩ বলে তামিমের ১০৭

বিকেএসপি থেকে: হোয়াট অ্যা শট! উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশের ইনিংসে সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত বাক্য এটি। দর্শকসারি থেকে শুরু করে বিকেএসপির তিন নম্বর গ্রাউন্ডের মিনি প্রেসবক্স; সর্বত্রই ছড়াল তামিম ইকবালের নান্দনিক সব শটের মুগ্ধতা। ২ মাস ২০দিন পর ব্যাট হাতে ফেরা এ বাঁহাতি ওপেনার নিজের প্রত্যাবর্তন রাঙালেন সেঞ্চুরিতে।

তিন অঙ্ক ছুঁয়ে সোজা ব্যাটে সাইডস্ক্রিনের উপর দিয়ে বিশাল ছক্কায় হারালেন বলও। ৩৩২ রানের লক্ষ্যে নেমে বিসিবি একাদশকে জয়ের কক্ষপথে রেখে আউট হয়েছেন তামিম। ক্যারিবীয় অফস্পিনার রোস্টন চেজের ডেলিভারি এগিয়ে মারতে গিয়ে স্টাম্পড হন। খেলেন ৭৩ বলে ১০৭ রানের অসাধারণ ইনিংস।

ব্যাকফুটে কাট, ফ্রন্টফুটে কাভার ড্রাইভ, স্কুপ, আলতো ছোঁয়ায় সিঙ্গেল, পুল, ফ্লিক, সুযোগ বুঝে ডাউন দ্য উইকেটে এসে দুর্দান্ত টাইমিং। রানিং বিটুইন দ্য উইকেটেও ছিলেন দারুণ। চনমনে ১৩ চার ও দুই ছক্কায় সাজানো তামিমের ইনিংসে ছিল দুর্দান্ত শটের মহড়া।

ইনিংসের ২২তম ওভারে দেবেন্দ্র বিশুকে লংঅনে ঠেলে তামিম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ৭০ বলে। গত সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে আঙুলে চোট পাওয়ার পর থেকে মাঠের বাইরে ছিলেন দেশসেরা ওপেনার।

চোট কাটিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে ফেরার সম্ভাবনা জাগলেও ছিটকে যান সাইড স্ট্রেইনের চোটে পড়ে। তবে ৯ ডিসেম্বর থেকে মিরপুরে শুরু হতে যাওয়ায় ওয়ানডে সিরিজে ফিরছেন। তার আগে প্রস্তুতি ম্যাচে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করে জানান দিলেন, আছেন চেনা ছন্দেই।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিসিবি একাদশের সংগ্রহ ২৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০০ রান। ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী ইমরুল কায়েস ফিরে যান ২৭ রান করে। তিনে নামা সৌম্য সরকার ৪৯ রানে অপরাজিত আছেন।