চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তাইওয়ানের ধ্বংসস্তূপের নিচে আটক শতাধিক

তাইওয়ানে শনিবারের শক্তিশালী ভূমিকম্পে ধসে পড়া একটি ১৭ তলা আবাসিক ভবনের নিচে ১শ’রও বেশি মানুষ আটকা পড়ে আছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

আটকে পড়াদের বেশিরভাগই ধ্বংসাবশেষের অনেক গভীরে রয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত শহর তাইনানের মেয়র লাই চিং-তে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কুকুর ও অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতির সাহায্যে তাদের উদ্ধারের জোর চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি। শতাধিক সেনা সদস্যও উদ্ধারকর্মীদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন।

চাপা পড়া সবাইকে উদ্ধারে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মা ইং-জিউ।

উদ্ধারকর্মীদের মতে, আটকে থাকাদের ২৯ জন ধ্বংসস্তূপের কিছুটা ওপরের দিকে থাকায় তাদেরকে বের করে আনা তুলনামূলক সহজ হবে।

শনিবার তাইওয়ানের স্থানীয় সময় ভোর চারটার দিকে রাজধানী তাইপেই থেকে ৩শ’ কিলোমিটার দক্ষিণের শহর তাইনানে ৬.৪ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পটি হয়। ওই ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত ১৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে একটি নবজাতক শিশুও ছিলো।

এছাড়াও ভয়াবহ এ ভূমিকম্পে আহত হয়েছে প্রায় ৫শ’ মানুষ, যার মধ্যে কমপক্ষে ৯২ জন এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে ভূমিকম্পে এতো হতাহতের ঘটনায় আবাসিক ভবনটির নির্মাণ কৌশল নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তাইনান শহরের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল লিউ শিহ-চুং জানিয়েছেন, ভবন ধসের টেলিভিশন ফুটেজ দেখে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে ’৯০-এর দশকে নির্মিত ভবনটিতে গঠনগত ত্রুটি ছিলো।

এছাড়াও এর নির্মাণে নিম্ন মানের রিইনফোর্সড স্টিল এবং সিমেন্ট ব্যবহার করা হয়েছিলো বলেও ধারণা করা হচ্ছে। যথাযথ তদন্তের পর এ ব্যাপারে নিশ্চিত তথ্য জানানোর কথা বলেছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।