চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ডাকসুর ভিপি নুর, জিএস রাব্বানী

দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি পদে ১১০৬২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা মোহাম্মদ নুরুল হক নূুর।

জিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক  গোলাম রব্বানী আর এজিএস হয়েছেন ছাত্রলীগের সাদ্দাম হোসেন।

বিজ্ঞাপন

সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ফলাফল ঘোষণা করেন ভিসি ড. আখতারুজ্জামান ৷

বাকি পদগুলোর মধ্যে একটি ছাড়া সবগুলোতেই জয় পেয়েছে ছাত্রলীগ। এরমধ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক পদে সাদ বিন কাদের, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে আরিফ ইবনে আলী, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক পদে বি এম লিপি আক্তার, আন্তর্জাতিক সম্পাদক পদে শাহরিমা তানজিনা অর্নি, সাহিত্য সম্পাদক পদে মাজহারুল কবির শয়ন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে আষিফ তালুকদার, ক্রীড়া সম্পাদক পদে শাকিল আহামদ তানভীর, পরিবহন সম্পাদক পদে শামস্-ই-নোমান।

এর বাইরে সমাজ সেবা সম্পাদক পদে বিজয়ী হয়েছেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আখতার হোসেন।

গোলাম রাব্বানী

হল সংসদে নির্বাচিত যারা

হল সংসদ নির্বাচনে ঘোষিত ফলাফল অনুযায়ী ৮টি হল সংসদে পূর্ণ প্যানেলে জয় পেয়েছে ছাত্রলীগ।

হলগুলোর মধ্যে রয়েছে, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হল, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল,  কবি জসিমউদ্দিন হল, সলিমুল্লাহ্ মুসলিম হল, বিজয় একাত্তর হল, জগন্নাথ হল, এফ রহমান হল এবং শহীদুল্লাহ হল।

মুহসীন হলের ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন শহীদুল হক শিশির এবং জিএস নির্বাচিত হয়েছেন মেহেদি হাসান মিজান।

জিয়া হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন শরিফুল ইসলাম শাকিল, জিএস হয়েছেন হাসিবুল হোসেন শান্ত এবং এজিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুল্লাহ মমিন আবির।
কবি জসীমউদ্দীন হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন ফরহাদ আলী, জিএস হয়েছেন ইমাম হাসান এবং এজিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন সাইফুল ইসলাম।

সলিমুল্লাহ্ মুসলিম হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন এম এম কামাল, জিএস নির্বাচিত হয়েছেন জুলিয়াস সিজার এবং এজিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন নওশের।

বিজয় একাত্তর হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন সজিবুর রহমান এবং জিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন নাজমুল হাসান নিশান।

জগন্নাথ হলে ভিপি পদে নির্বাচিত হয়েছেন উৎপল বিশ্বাস এবং জিএস পদে কাজল দাশ।

এ এফ রহমান হলে ভিপি হয়েছেন আব্দুল আলীম খান এবং জিএস আব্দুর রহীম।

শহীদুল্লাহ হলের ভিপি পদে জয় পেয়েছেন হোসাইন আহমদ সোহান এবং জিএস হয়েছেন ইরফানুল হাই সৌরভ।

বিজ্ঞাপন

অন্য হলগুলোর মধ্যে শামসুনন্নাহার হলে ভিপি-জিএস-এজিএসসহ ৮টি পদে স্বতন্ত্র প্যানেলর সব প্রার্থীই জয়ী হয়েছেন। ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন শেখ তাসনিম আফরোজ ইমি, জিএস হয়েছেন আফসানা ছপা এবং এজিএস পদে নির্বাচিত হয়েছেন ফাতিমা আক্তার।

হলের মোট ১৩টি পদের মধ্যে মাত্র পাঁচটি পদে জয় লাভ করেছেন ছাত্রলীগের প্রার্থীরা।

আলোচিত কুয়েত-মৈত্রী হলে ভিপি ও জিএস নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী সুস্মিতা দে এবং সাগুফ্তা বুশরা মিশমা।

রোকেয়া হলে ভিপি-জিএস-এজিএসসহ ১১টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগ প্রার্থীরা। ভিপি হয়েছেন ইশরাত জাহান তন্বী, জিএস সায়মা আক্তার, এজিএস ফাল্গুনী দাস তন্বী।

সুফিয়া কামাল হলে ভিপি-জিএসসহ ৯টি পদে স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রার্থীরা জয় লাভ করেছেন। ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন তানজিলা আক্তার সোমা। জিএস মনিরা শারমিন। মাত্র ৩টি পদ পেয়েছে ছাত্রলীগ। বাকি একজন ছাত্র ইউনিয়নের।
মাস্টার দা’ সূর্য সেন হলে দুটি পদ ছাড়া ভিপি-জিএস-এজিএসসহ ১১টি পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগ মনোনীত প্যানেলের প্রার্থীরা।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে দুটি পদ ছাড়া ভিপি-জিএসসহ বাকি সবগুলো পদে নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের প্রার্থী।

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে ভিপি পদে নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী রিকি হায়দার আশা। জিএস হয়েছেন ছাত্রলীগের সারা বিনতে জামাল এবং এজিএস হয়েছেন সাবরিনা খাতুন।

ফজলুল হক মুসলিম হলে ভিপিসহ পাঁচ পদে জয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্যানেলের প্রাথীরা। ভিপি হয়েছেন মাহমুদুল হাসান তমাল। বিজয়ী অন্য স্বতন্ত্র প্রাথীরা হলেন; বহিরাঙ্গন ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার বাপ্পী, পাঠকক্ষ বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রাকীব এবং সদস্য শামিম এবং মাহবুব।

এই হলে জিএস এজিএসসহ ছাত্রলীগের আট প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। তারা হলেন; জিএস মাহফুজুর রহমান, এজিএস শাহিনুর, অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক রওনক ইসলাম, সমাজ সেবা বিষয়ক সম্পাদক রানা আরাফাত, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ইমরান হোসেন , সাহিত্য সম্পাদক আবু হাসিব এবং সদস্য পদে কাইছার ও রাফসান।

শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলে জিএস পদ ছাড়া বাকি সব পদে জিতেছে ছাত্রলীগ।  ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন ছাত্রলীগের সাইফুল্লাহ আব্বাসি অনন্ত। জিএস হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী তৌফিকুল ইসলাম। এজিএস পদে হয়েছেন ছাত্রলীগের সুরাপ মিয়া৷

অমর একুশে হলে ভিপি নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদী হাসান সুমন। জিএস হয়েছেন ছাত্রলীগের  আহসান হাবীব৷

সোমবার সকাল ৮টায় প্রায় সব হলে ডাকসু নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হলেও রোকেয়া হলে প্রায় এক ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয়েছিল ভোট। এর কিছুক্ষণ পরই একাধিক প্রার্থী অভিযোগ করতে থাকেন যে, তিনটি ব্যালট বাক্স সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

এ ঘটনার পর ব্যালট নিয়ে সৃষ্ট বিশৃঙ্খলায় ডাকসু নির্বাচন বর্জন করে স্বতন্ত্র জোট অরণি-শাফী প্যানেল।

এরপর ভোট বাতিল করে পুনঃতফসিল দাবি করে স্বতন্ত্র, বাম প্রগতিশীল ছাত্রঐক্য, সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদসহ ৪টি প্যানেল। ভোট বর্জন করে ছাত্রদলও। একই সাথে নির্বাচন আবার অনুষ্ঠানের দাবি জানায় তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কুয়েত মৈত্রী হল এবং রোকেয়া হলে ভোটগ্রহণ সাময়িক স্থগিত করার পর পুনরায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়।  ওই দুটি হল ছাড়া অন্য হলগুলোতে ভোটকেন্দ্রগুলোতে দুপুর ২ টায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়।

Bellow Post-Green View