চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ট্রাম্পের অভিসংশন শুনানিতে সরাসরি অভিযোগ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ডেমোক্র্যাটদের অভিশংসন তদন্তের শুনানি প্রকাশ্যে শুরু হয়েছে।

প্রথম দিন দেয়া সাক্ষ্য দেন ইউক্রেনে নিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত উইলিয়াম টেইলর জুনিয়র জানান, ট্রাম্পের সঙ্গে সাবেক রাজনৈতিক নেতা গর্ডন সন্ডল্যান্ডের ২৬ জুলাইয়ের একটি ফোনালাপ সম্পর্কে তিনি জানতে পেরেছেন।

বিজ্ঞাপন

ওই সময় ট্রাম্প তার প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন ও তার ছেলের ইস্যুতে তদন্তের বিষয়টি নিয়ে সরাসরি কথা বলেছিলেন বলে জানান তিনি।

বুধবারের শুনানিতে আরও সাক্ষ্য দেন ইউক্রেন বিষয়ক মার্কিন উপদেষ্টা জর্জ কেন্ট। তিনি বলেন, ট্রাম্পের আইনজীবী রুডি গিউলিয়ানি ইউক্রেনে মার্কিন কর্মকর্তার সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করতে বলেছিলেন। সে সময় গিউলিয়ানি এবং অন্যরা ইউক্রেনের ওপর চাপ সৃষ্টি করেছিল বলেও জানান তিনি।

ওয়াশিংটনে কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের গোয়েন্দা কমিটির সামনে এ শুনানি চলে।

বিবিসি জানায়, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে প্রকাশ্যে শুনতে এর আগে তিন মার্কিন কূটনীতিককে ডেকে পাঠিয়েছিলেন অভিশংসন তদন্তের নেতৃত্বে থাকা হাউজ ডেমোক্র্যাটরা। কয়েক সপ্তাহের রুদ্ধদ্বার প্রক্রিয়ার পর মার্কিন কংগ্রেস কার্যালয় ক্যাপিটাল হিলে স্থানীয় সময় বুধবার সকাল ১০টায় কংগ্রেসে প্রতিনিধি পরিষদের গোয়েন্দা কমিটির সামনে শুনানি শুরু হয়।

বিজ্ঞাপন

ঐতিহাসিক এ শুনানি অধিবেশনের উদ্বোধন করেন ডেমোক্র্যাট দলের প্রতিনিধি ও হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের গোয়েন্দা কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডাম শিফ। তিনি জানান, অভিশংসন তদন্তে যে প্রশ্ন উঠেছে তা নিয়ে শুধু ক্ষমতা নয়, খোদ প্রেসিডেন্টের ভবিষ্যতেও প্রভাব ফেলবে।

রিপাবলিকান নেতা ডেভিন নুনসের উপস্থিতিতে শুনানি পরিচালনা করেন হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের তদন্ত কমিটির আইনজীবীরা। শুনানিতে এ প্রক্রিয়াকে ‘ডেমোক্র্যাটদের সাজানো নাটক’ বলে অভিযোগ করেন তিনি। বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ প্রমাণে ব্যর্থ হয়ে ইউক্রেন ইস্যু সামনে আনা হয়েছে।ট্রাম্পের শুনানি-অভিসংশন

শুনানি চলার সময় ক্যাপিটাল হিলের বাইরে বিক্ষোভ হয়েছে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। আর লন্ডনে এক অনুষ্ঠানে সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন বলেছেন, প্রকাশ্য এই শুনানি ট্রাম্পকে জনগণের সামনে নিশ্চিতভাবে বিভ্রান্তিকর ও লোক ঠকানো হিসেবে তুলে ধরবে।

এমন ঘটনার সাক্ষী হতে টিভি সেটের সামনে মার্কিনিদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। শুধু মার্কিনিরাই নয় ইউক্রেনের জনগণও প্রকাশ্য এই শুনানি সম্পর্কে জানতে জড়ো হয়েছিল দেশটির পার্লামেন্টের সামনে।

বিবিসি, সিএনএন, আল-জাজিরাসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো সরাসরি সম্প্রচার করেছে এ শুনানি।

শুক্রবার আবারও প্রকাশ্যে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। ওই শুনানিতে টেইলর জুনিয়রের প্রস্তাবিত আরেক সাক্ষী, ডেভিড হোমসকে উপস্থিত করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

Bellow Post-Green View