চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জয়-লেখকের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নবযাত্রা

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে জয়-লেখকের নেতৃত্বে সুসংগঠিত নতুন যাত্রার ও নতুন আলোর দীপ্তি ছড়ানোর শপথ গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

গত বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বর থেকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ বাসে করে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা দেয়। গোপালগঞ্জে প্রবেশের মুখেই স্থানীয় ছাত্রলীগের হাজারও নেতাকর্মী ফুল দিয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে কেন্দ্রীয় নেতাদের বরণ করে নেয় ও স্বাগত জানায়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এরপর ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সংগঠনটির নেতারা। পরে তারা বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনের অংশ হিসেবে সেখানে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন এবং জাতির পিতার মাজার জিয়ারত করেন। জিয়ারত শেষে জয়-লেখকের নেতৃত্বে সুসংগঠিত নতুন যাত্রার ও নতুন আলোর দীপ্তি ছড়ানোর শপথ গ্রহণ করে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ।

বিজ্ঞাপন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ছাত্রলীগ সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় বলেন: স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছি এবং জাতির পিতার আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বাঙালি জাতির অনুপ্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা আমাদের অভিভাবক শেখ হাসিনা জাতির পিতার স্বপ্নের দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করেছেন এবং দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন সমৃদ্ধির দিকে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতারা জাতির পিতার আদর্শ ধারণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাবে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ছাত্রলীগের

সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজ হাতে গড়া আন্দোলন সংগ্রামের মহাকাব্যিক পথচলার গর্বিত সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাদের সঙ্গে নিয়ে মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাতির পিতার নির্দেশিত পথে প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কার্যক্রম চালিয়ে যাবে।

২০১৭ সালে ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলনের পর শোভনকে সভাপতি ও রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে দুই বছর মেয়াদী ছাত্রলীগের কমিটি করা হয়। কিন্তু চাঁদাবাজিসহ আরও কয়েকটি অভিযোগের কারণে গত বছরের সেপ্টেম্বরে তারা পদ ছাড়েন। এরপর ছাত্রলীগের দায়িত্ব পান জয়-লেখক। এর ধারাবাহিকতায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দকে বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান তারা।

বিজ্ঞাপন