চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জীবনানন্দের মানচিত্র: ইতিহাস, সাংবাদিকতা ও সাহিত্যের মেলবন্ধন

বইমেলায় এসেছে সাংবাদিক, লেখক ও গবেষক আমীন আল রশীদের দীর্ঘ অনুসন্ধানের ফসল ‘জীবনানন্দের মানচিত্র’। এতে রয়েছে রূপসী বাংলার কবিখ্যাত জীবনানন্দ দাশের ৫৫ বছরের ঘটনাবহুল জীবনের সাথে সম্পর্কিত সব স্থানের সচিত্র বিবরণ। দুর্লভ অনেক ছবির সাথে রয়েছে জীবনানন্দের কাল ও বর্তমান সময়ের তুলনামূলক আলোচনা।

বাংলাদেশ ও ভারতের যেসব জায়গায় কবি জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত ছিলেন, সেসব জায়গা এখন কেমন আছে; সেখানে জীবনানন্দের কোনো স্মৃতি আছে কি না- তার জন্মস্থান ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে যেসব বিতর্ক বা সংশয় রয়েছে, তাও উঠে এসেছে এই বইতে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

পুরো বইটি মূলত জীবনানন্দের ৫৫ বছরের একটি অ্যালবাম। একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক বাংলাদেশ ও ভারতের নানা জায়গায় বছরের পর বছর ধরে খুঁজেছেন কবি ও ব্যক্তি জীবনানন্দ দাশকে। কথা বলেছেন জীবনানন্দের সাক্ষাৎ পাওয়া একাধিক মানুষের সাথে। ১৯৫২ সালে কলকাতার বড়িশা কলেজে তার যোগদানের বিষয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তসম্বলিত দুর্লভ রেজিস্ট্রি খাতাও খুঁজে বের করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের বরিশাল, বাগেরহাট, কলকাতা শহর, খড়্গপুর, দিল্লিসহ যেসব জায়গায় স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদে জীবনানন্দ দাশ বসবাস করেছেন, ধানসিঁড়ি ও জলসিঁড়ি নদী; স্টিমারযাত্রা, বরিশাল শহরের অলিগলিতে তার পথহাঁটা—সবই উঠে এসেছে এই অনুসন্ধানে। এসব জায়গায় লেখককে অনেকবার যেতে হয়েছে। প্রতিটি তথ্য যাচাই-বাছাই করতে হয়েছে। সব মিলিয়ে ‘জীবনানন্দের মানচিত্র’ মূলত অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার একটি প্রামাণ্য দলিল—যেখানে রয়েছে ইতিহাস ও সাহিত্যের মেলবন্ধন।

জীবনানন্দের জীবনীকার প্রভাতকুমার দাসের সরাসরি তত্ত্বাবধান এবং গবেষক গৌতম মিত্রের গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শে লিখিত এই বইটি প্রকাশ করেছে ‘ঐতিহ্য’। বইমেলায় প্যাভিলিয়ন নম্বর ৬। বইটির প্রচ্ছদ এঁকেছেন শিল্পী তাপস কর্মকার। ২৩৮ পৃষ্ঠার এই বইটির গায়ের দাম ৫৮০ টাকা। তবে মেলায় কেনা যাবে ২৫ শতাংশ ছাড়ে।

বইটি রকমারি ডটকম ছাড়াও দেশের বড় শহরগুলোয় ঐতিহ্যর বই বিক্রয়কেন্দ্র ‘নির্বাচিত’র শোরুমেও পাওয়া যাবে।