চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জলবায়ু পরিবর্তন গবেষণা অভিযানে বাংলাদেশের সেজান

জলবায়ু পরিবর্তন বর্তমান বিশ্বের গুরুতর সমস্যা, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণগুলোর মধ্যে বৈশ্বিক উষ্ণতা এবং মানুষের দ্বারা দৈনন্দিন জীবনের ক্ষতিকারক রাসায়নিক ব্যবহার প্রধান অন্যতম। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে ইতোমধ্যেই উত্তর মেরুতে শুরু হয়েছে গবেষণা।

গবেষণায় কানাডা থেকে অংশ নিচ্ছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সেজান মল্লিক। প্লাস্টিক দূষণ বন-জঙ্গল উজাড় ও মানুষের অন্যান্য ক্ষতিকারক দ্রব্যাদি ব্যবহার ও কার্যক্রমের কারণে পৃথিবী বর্তমানে হুমকির সম্মুখীন, যে কারণে জলবায়ু দ্রুত পরিবর্তনে সরাসরি প্রভাব হচ্ছে, পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধি যা আমাদের ভবিষ্যৎ পৃথিবীর জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এক গবেষণায় দেখা গেছে, উত্তর মেরুতে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সবচেয়ে বেশি। কিন্তু দুর্গম এবং হিম ঠাণ্ডা আবহাওয়ার কারণে উত্তর মেরুতে প্রয়োজনীয় তথ্য উপাত্তের অভাব রয়েছে। কোনো একটি দেশের পক্ষে এই অঞ্চলে দীর্ঘমেয়াদি গবেষণা করা সম্ভব নয়। একই সঙ্গে আর্থিক সামর্থ্য ও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতিরও অভাব আছে। এ বছর এই আন্তর্জাতিক উত্তর মেরু অভিযানের নামকরণ করা হয়েছে ‘মোজাইক’।

এক বছরেরও বেশি সময়ব্যাপী এই অভিযানের মাধ্যমে মেরু অঞ্চলে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব গবেষণা করে আগামীতে সমগ্র পৃথিবীতে কী ধরনের প্রভাব পড়বে তা জানা যাবে। অভিযানটি পরিচালনা করছে জার্মানির আলফ্রেড অওেগার ইনস্টিটিউট। এই কারণে ১৯টি দেশের গবেষকরা একত্রিত হয়ে পৃথিবীর ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অভিযান শুরু করেছে উত্তর মেরুর উদ্দেশে।

এই অভিযানের প্রধান জাহাজ পোলারস্টার্নকে সাহায্য করবে চীন, সুইডেন ও রাশিয়ার ৫টি অত্যাধুনিক জাহাজ। এছাড়া হেলিকপ্টার এবং জার্মান বিমান গবেষকদের বিভিন্ন সময়ে আনা নেওয়া ও তথ্য সংগ্রহে সাহায্য করবে।

Bellow Post-Green View