চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জমিজমার জেরে বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত কুলসুম বেগম (৬৫) রাজিন্দারপাড় গ্রামের সবর আলী সিকদারের দ্বিতীয় স্ত্রী। প্রথম স্ত্রীর সন্তানেরা তাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠলেও বিষয়টি অস্বীকার করেছে সন্দেহভাজনরা।

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মাদ ছানোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

গত শনিবার কোটালীপাড়া উপজেলার রাধাগঞ্জ ইউনিয়নের রাজিন্দারপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত কুলসুমের ছেলে স্বপন সিকদার বাদী হয়ে ৪ নারী ও ৩ জন পুরুষকে আসামী করে কোটালীপাড়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মাদ ছানোয়ার হোসেন বলেন, “নিহত কুলসুমের সন্তান স্বপন সিকদারের থানায় দায়েরকৃত হত্যা মামলার ৪ আসামিকে গ্রেপ্তার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মামলা তদন্তের স্বার্থে তাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য আপাতত বলা যাচ্ছে না। তবে, নিরীহ কোন মানুষকে আমরা হয়রানি করবো না।

থানায় দায়েরকৃত মামলার সূত্রে পুলিশ কোটালীপাড়া উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪ নারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

কোটালীপাড়া থানার ওসি শেখ লুৎফার রহমান জানিয়েছেন, জমি-জমা নিয়ে সতিনের সন্তানদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো নিহত কুলসুমের। কুলসুম বেগমকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য গত শনিবার আনুমানিক সকাল পৌনে ১০টার দিকে আলাউদ্দিন সিকদার, স্ত্রী রোকেয়া বেগম, মেয়ে লিমা সিকদার ও ভাই রিপন সিকদার কলসুম বেগমকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। আহত কুলসুমকে প্রথমে কোটালীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পরে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ও সবশেষে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত ৮ টায় সে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।