চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চার দিন পর নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা বিএনপির

নির্বাচন শেষ হওয়ার প্রায় চার দিন পর নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন অনুষ্ঠানিকভাবে বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির পরাজিত দুই মেয়রপ্রার্থী।

তাদের দাবি, নির্বাচনের দিন বেশিরভাগ কেন্দ্রেই বিএনপির পোলিং এজেন্টদের ঢুকতে দেয়া হয়নি। প্রায় প্রতিটি কেন্দ্র ছিল আওয়ামী লীগের ভাড়াটে ক্যাডারদের দখলে।

বুধবার রাজধানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি করেন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণে বিএনপি মনোনীত দুই মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও ইশকার হোসেন।

নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘যে ভোটে সিটির দুই মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন, তার আইনগত ভিত্তি আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে হবে। এই নির্বাচনের ফল বাতিল করে পুনর্নির্বাচন দিতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

গত শনিবার অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। আর দক্ষিণ সিটিতে জয় পান একই দলের ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস।

তবে এই নির্বাচনে ভোটাদের অনুপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অন্য যে কোনো সময়ের তুলনায় এবারের নির্বাচনে কম ভোট পড়েছে।

ঢাকা উত্তরে মোট ভোটার ছিল ৩০ লাখ ১২ হাজার ৫০৯ জন। কিন্তু ভোট দিয়েছেন ৭ লাখ ৬২ হাজার ১৮৮ জন। আবার দক্ষিণে মোট ভোটার ছিল ২৪ লাখ ৫৩ হাজার ১৫৯ জন। তবে ভোট দিয়েছেন ৭ লাখ ১৩ হাজার ৫০টি।

ভোটের দিন কিছু কিছু কেন্দ্রে ভোটারদের প্রবেশে বাধা এবং পোলিং এজেন্টদেরকে বের করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করে বিএনপি।

অবশ্য বিএনপির পোলিং এজেন্টরা নিজেরাই কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে গিয়ে নাটক করছে বলে দাবি করে আওয়ামী লীগ।

বিজ্ঞাপন