চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঘরবন্দি সময়ে সিনেমা: নির্মাতা জসীম আহমেদের প্রিয় দশ

প্রিয় সিনেমা:

ঘরে বসে দেখুন দেশ-বিদেশের সিনেমা:

করোনাভাইরাস -এর এই দুঃসময়ে নানা অনিশ্চয়তার মধ্যে মানুষ। প্রায় সবাই ঘরবন্দি। অনেককে বাসায় বসে করতে হচ্ছে অফিসের কাজ। বাইরে বের হতে না পারায় বিরাট সংখ্যক মানুষের মানসিক অবস্থা পরিবর্তনের কথাও বলছেন চিকিৎসকরা। পরামর্শ দিচ্ছেন,  ঘরবন্দির এই সময়টাকে প্রিয় কিছুর সান্নিধ্যে উদযাপন করতে।

ঘরবন্দি, বিষয়টিতে অভ্যস্ত নয় দেশের মানুষ। এদিকে মরণব্যাধী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে এটাই এখন একমাত্র করণীয়। যেহেতু ঘরে বসেই কাটাতে হচ্ছে পুরো সময়, তাই কাজের বাইরে ঘরে থাকার এই সুযোগটাকে কাজে লাগাতে পারেন দেশ বিদেশের সিনেমা, নাটক কিংবা ওয়েব সিরিজ দেখে। পড়তে পারেন প্রিয় লেখকের বইও। এতে মন যেমন প্রফুল্ল হবে, তেমনি সময়ও কেটে যাবে আনন্দে।

বিজ্ঞাপন

চলচ্চিত্র নির্মাতা, প্রযোজক ও অভিনেতাদের দেখা পছন্দের ছবিগুলো সম্পর্কে নিয়মিত খোঁজ খবর দিচ্ছে চ্যানেল আই অনলাইন। তারই ধারাবাহিকতায় ‘প্রিয় সিনেমা’-বিভাগে এবার নিজের দেখা সর্বকালীন পছন্দের দশ চলচ্চিত্রের নাম জানালেন নির্মাতা ও প্রযোজক জসীম আহমেদ। যিনি ‘দাগ’, ‘অ্যা পেয়ার অব স্যান্ডেল’ ও ‘চকোলেট’-এর মতো স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করে দেশ-বিদেশে খ্যাতি পেয়েছেন। মুক্তির প্রতীক্ষায় আছে তার প্রযোজিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ডেব্রি অব ডিজায়ার’।

করোনায় স্থবির এই সময়ে জসীম আহমেদ নিজেও ঘরে বসে দেখছেন সিনেমা, ওয়েব সিরিজ। করোনাকালে এই প্রযোজক, নির্মাতার পছন্দের সিনেমাগুলোর সঙ্গে নিজের তালিকা মিলিয়ে দেখতে পারেন সিনেমাপ্রেমীরা। এরমধ্যে কোনো সিনেমা দেখে না থাকলে করোনার এই বিষাদগ্রস্ত দিনগুলোতে ঘরে বসে দেখে নিতে পারেন:

দেয়ার উইল বি ব্লাড (২০০৭):

বয়হুড (২০১৪):


নো কান্ট্রি ফর ওল্ড ম্যান (২০০৭):


চিলড্রেন অব ম্যান (২০০৬):

দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল (২০১৪):


মেমেন্তো (২০০০):

ক্যাপারনিয়াম (২০১৮):


দ্য কিলিং অব অ্যা সেক্রেড ডিয়ার (২০১৭):

অ্যান্টিক্রাইস্ট (২০০৯):


গ্যাংস অব ওয়াসিপুর (২০১২):