চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গৃহবধূ হত্যার দায়ে স্বামী ও শ্বশুরের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ তাছলিমা আক্তার হত্যা মামলার রায়ে স্বামী ও শ্বশুরকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এ রায় দেন।

বিজ্ঞাপন

রায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামির প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে আর্থিক জরিমানা করা হয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো নিহত গৃহবধুর স্বামী জহিরুল ইসলাম ও শ্বশুর মো. মজনু।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি নাসিমুল আক্তার মামলার এজাহার সূত্রে জানান, ২০১৪ সালে টাঙ্গাইল জেলার ভূঞাপুর উপজেলার ডিগ্রিরচর কুঠির বয়রা গ্রামের খন্দকার তছলিম উদ্দিনের মেয়ে তাছলিমা আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় একই উপজেলার অর্জুনা গ্রামের মো. মজনুর ছেলে জহিরুল ইসলামের সাথে।

বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবীতে স্বামীর পরিবার গৃহবধূ তাছলিমাকে নির্যাতন করতে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর গৃহবধূ তাসলিমাকে হত্যা করে যমুনা নদীতে লাশ ভাসিয়ে দেয়। ২৯ নভেম্বর গৃহবধূর লাশ যমুনা নদীতে ভেসে উঠলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহত তাসলিমা আক্তারের পিতা খন্দকার তছলিম উদ্দিন বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামী পলাতক রয়েছে।