চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গাবতলী থেকে মিরপুর সড়কে রিকশা চলাচলে বাধা নেই

পর্যায়ক্রমে অবৈধ রিকশা বন্ধ করবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। কুড়িল থেকে মালিবাগ পর্যন্ত বৈধ রিকশাগুলোরও লেন ধরে চলতে হবে। রিকশা মালিক-শ্রমিক সংগঠন এবং ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে বৈঠক করে অবৈধ রিকশার গ্যারেজ বন্ধেও কমিটি করেছে সিটি কর্পোরেশন। তবে গাবতলী থেকে মিরপুর সড়কে আগের মতো রিকশা চলাচলে বাধা নেই। 

কয়েকদিন আগে কুড়িল থেকে রামপুরা হয়ে মালিবাগ পর্যন্ত রিকশা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় দুই সিটি কর্পোরেশন। রিকশাশ্রমিকরা প্রতিবাদে সোমবার দিনভর সড়কটিতে বিক্ষোভ করেন। প্রধানমন্ত্রী একনেকে রিকশার জন্য আলাদা লেন চালুর ঘোষণা দেন। মেয়রও আশ্বাস দেন। রিকশাশ্রমিকরা বিক্ষোভ স্থগিত করেন।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন জটিলতা সমাধানে বুধবার সভা করে। রিকশা মালিক-শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে এতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতারাও অংশ নেন।

বিজ্ঞাপন

ঢাকা উত্তরে ২৭ হাজার ৫শ’ রিকশা অনুমোদিত। পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগের দাবি, অবৈধ রিকশার কারণে যানজট হয়, দূর্ঘটনা ঘটে এবং সড়কে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়।

সিটি কর্পোরেশন কোনোভাবেই অবৈধ রিকশা চলতে দেবে না। এর পরিপ্রেক্ষিতে পর্যায়ক্রমে প্রধান সড়ক থেকে রিকশা উঠে যাবে। এখন যেসব সড়কে লেন আছে এবং অলিগলিতে চলতে পারবে।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন: অবৈধ রিকশা শনাক্ত করতে বৈধ রিকশাগুলোতে কিউআর কোড বসানো হবে। সেই সঙ্গে মূল সড়কে রিকশা না চলে চলাচল করবে বাইলেনে। এছাড়া তারা (রিকশাচালকরা) নন-মেকানিক্যাল ট্রান্সপোর্ট (এনএমটি) বা বাইলেনে রিকশা চালাবেন।

Bellow Post-Green View