চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ক্যামেরনকে ডাকাত বলেছিলেন মেরকেল

ব্রিটেন ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে (ইইউ) নাও থাকতে পারে বলে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের মন্তব্যর পর জার্মানির চ্যান্সেলর এঞ্জেলা মেরকেল তাকে ‘ঘৃণ্য’ এবং ‘ডাকাত’ বলে তীব্র সমালোচনা করেছিলেন।

রোববার প্রকাশিত এন্থনি সেলডন এবং পিটার স্নোডনের নতুন বই ‘ক্যামেরন এ্যাট ১০’ এ ওই নেতার মধ্যে এমনই আলাপচারিতার কথা উঠে এসেছে।

বইটিকে দাবি করা হয়, ডেভিড ক্যামেরন এঞ্জেলা মেরকেলকে বলেছিলেন, তিনি যুক্তরাজ্য এবং  ইইউর  সম্পর্ক ছিন্ন করতে প্রস্তুত। এর উত্তরে জার্মান চ্যান্সেলরও কড়া ভাষায় ব্রিটেনকে ‘ইউরোপের প্রবলেম চাইল্ড’ বলে উল্লেখ করেছিলেন।

ক্যামেরন বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার সময় ‘ডাকাত’এর মতো আচরণ করেছেন বলেও তাকে অভিযুক্ত করেন মেরকেল।

বিজ্ঞাপন

ওই সময় সমলিঙ্গীয় বিবাহ ‘গে মেরেজ’ বিষয়ে ক্যামরনের নীতির সমালোচনাকে ‘আদিম মানসিকতা’ বলেও উল্লেখ করেছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। এমন তথ্যও রয়েছে বইটিতে।

ডাউনিং স্ট্রিট এ জার্মান চ্যান্সেলরের সাথে মুখোমুখি আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যদি কোনো চুক্তি না হয়; তবে তাই পৃথিবীর শেষ কথা নয়। আমি ইইউ থেকে চলে আসবো।’

জবাবে ক্ষুদ্ধ মেরকেল বলেন, ক্যামেরনের আচরণ তাকে ‘ঘৃণ্য’ করে তুলছে। চ্যান্সেলর ক্যামেরনের ইউরোপকে নিয়ে সংশয়বাদী দৃষ্টিভঙ্গির প্রতি উপহাস করে বলেন, যার এরকম মানসিকতা তার ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিত।

সূত্র: মেইল অনলাইন

শেয়ার করুন: