চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কোহলি ‘অভদ্র, মূর্খ’!

পার্থ টেস্টের পর যদিও হাত মিলিয়েছেন বিরাট কোহলি ও টিম পেইন, সেই সৌজন্যতা বিনিময় নিয়ে আবার উঠেছে প্রশ্নও। বলা হচ্ছে সমালোচনার ভয়ে নামকাওয়াস্তে হাত মিলিয়েছেন ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক, যাতে ছিল না বিন্দুমাত্র উষ্ণতা। যে সমালোচনা এড়াতে হাত মিলিয়েছেন কোহলি, করমর্দনের পর তা যেন আরও বেশি করে বিদ্ধ করছে ভারত অধিনায়ককে!

দেশ-বিদেশ সবখান থেকে সমালোচনা ধেয়ে আসছে কোহলির দিকে। তালিকায় উপরে আছে অস্ট্রেলিয়ানরাই। অজিদের সাবেক গতি তারকা মিচেল জনসন কোনো প্রকার রাখঢাক না করেই মুখের ওপর বলে দিয়েছেন, কোহলি সৌজন্য জানেন না এবং মূর্খ!

বিজ্ঞাপন

‘ম্যাচ শেষে আপনাকে অবশ্যই প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়দের চোখের দিকে তাকাতে হবে, হাত ধরে বলতে হবে ভালো খেলেছো। বিরাট কোহলি টিম পেইনের সঙ্গে এমনটা করেনি। হাত মিলিয়েছে ঠিকই, কিন্তু অন্যদিকে তাকিয়ে। আমার কাছে এটা ভীষণরকম অভদ্রতা।’ ফক্স স্পোর্টসে লেখা কলামে ভারত অধিনায়ককে এভাবেই ধুঁয়ে দিয়েছেন জনসন।

বিজ্ঞাপন

‘কোহলি অনেক ক্রিকেটারের চেয়ে এগিয়ে, কারণ সে বিরাট কোহলি। সে একটা চূড়ায় পৌঁছে গেছে। কিন্তু এই টেস্টের পর মনে হয়েছে সে একটা মূর্খ!’ জনসনের অভিমত।

সিরিজের আগে ম্যাচে বাড়াবাড়ি করবেন না বলেও শেষপর্যন্ত কথাটা রাখতে পারেননি কোহলি। পার্থ টেস্টে অজি অধিনায়ক টিম পেইনের সঙ্গে সরাসরি কথার দ্বন্দ্বে জড়িয়েছেন। এক পর্যায়ে আম্পায়ার ক্রিস গেফানিকে এসে সরিয়ে দিতে হয়েছে দুজনকে।

ম্যাচ শেষে টিম পেইন সেসব ভুলে হাত বাড়াতে এলেও কোহলির আচরণ ক্ষোভের কারণ যোগাচ্ছে সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে। ১-১ সমতায় থাকা সিরিজের তৃতীয়টি হবে বক্সিং ডেতে, মেলবোর্নে। সেই টেস্টে ক্ষোভের আরও বিস্ফোরণ ঘটবে বলেও শঙ্কা বিশ্লেষকদের।

Bellow Post-Green View