চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কোরবানির মাংস অসচ্ছলদের মাঝে বিতরণের আহ্বান শাকিবের

ঈদ পালন করতে গিয়ে করোনাভাইরাস যেন ছড়িয়ে না যায়, সে বিষয়ে ভক্ত-অনুরাগীদের সচেতন থাকতে বলেছেন শাকিব। মানতে বলেছেন সরকারি বিধিনিষেধ…

আসন্ন ঈদুল আযহায় কোরবানি দেয়া পশুর মাংস সংরক্ষণ না করে আশপাশের অসচ্ছল প্রতিবেশীদের মধ্যে বিতরণ করুন। দেশের সামর্থবানদের প্রতি এমন আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকাই সিনেমার তারকা অভিনেতা শাকিব খান।

সেইসঙ্গে চলমান মহামারী করোনাভাইরাসের এই কালে শহর ছেড়ে নিজ এলাকায় ঈদ পালন করতে যাওয়া ঘরমুখি মানুষদেরকে সতর্কতা অবলম্বনেরও আহ্বান জানান দেশ সেরা এই নায়ক।

বিজ্ঞাপন

জনপ্রিয় এ নায়ক তার ভেরিফায়েড ফেসবুক, ইনস্টগ্রাম ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে ফিল্মসের পেজে আসন্ন ঈদে করোনার মধ্যে সচেতন থাকা ও কোরবানির অতিরিক্ত মাংস সংরক্ষণ না করে অসচ্ছল ও গরীবদের মাঝে বিতরণের পরামর্শ দেন।

সোমবার দুপুরে দেয়া ফেসবুক পোস্টে শাকিব বলেন, এবার ঈদে অনেকের রুটি-রুজির নিশ্চয়তা নেই। অনেকেই আছেন যারা কবে তৃপ্তি করে দু’মুঠো খেতে পেরেছেন বলতে পারেন না। এবারের কোরবানির ঈদটা না হয় তাদের কথা চিন্তা করেই হোক! সামর্থবানরা মাসের পর মাস কোরবানির মাংস ফ্রিজে সংরক্ষণ না করে বিতরণ করুন হত-দরিদ্রদের মাঝে।

শাকিব আরও লিখেছেন, এতে যেমন অসচ্ছলদের ক্ষুধা মিটবে, তেমনি হবে মানবতার কল্যাণ। আর এই আত্মত্যাগই তো কোরবানির আসল মাহাত্ম্য!

সেইসঙ্গে বার বার জোর দিয়ে করোনা নিয়েও সবাইকে সচেতন হতে বলেছেন। পোস্টে শাকিব বলেন, পৃথিবী আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে কতো দিন লাগবে সেটি এখনও অনিশ্চিত। সমস্ত পৃথিবীকে এখনও ভোগাচ্ছে করোনাভাইরাস। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মানুষ একটু বেশি সচেতন ছিল বিধায় তারা অনেকটা স্বাভাবিক জীবনযাপনের দেখা পেয়েছেন। কিন্তু অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে বর্তমানে আরও বেশি করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুহার বেড়েছে। কোভিড-১৯ সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে; ভবিষ্যৎ বলছে, পরিস্থিতি আরও ভয়ঙ্কর হতে যাচ্ছে!

ভক্ত ও দেশবাসীর কাছে অনুরোধ করে এই অভিনেতা আরো লিখেন, ‘‘সবার কাছে অনুরোধ, সাবধানতা মেনে ঈদ উদযাপন করুন। নিজে সুস্থ থাকুন। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চলুন। নিজের পরিবার স্বজনের সুরক্ষার নিশ্চিত করুন।’’

বিজ্ঞাপন