চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাঁচপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ২৫

পুলিশের সঙ্গে পোশাক শ্রমিকদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর এলাকা।  

রোববার সকালে বেতন ভাতার দাবি ও শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সিনহা গার্মেন্টস এর আন্দোলনরত শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের এ সংঘর্ষ হয়।

বিজ্ঞাপন

এতে পুলিশসহ অন্তত ২৫জন আহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্র জানায়, মাতৃত্বকালীন ছুটি, ছুটিকালে ভাতা প্রদান, মাসিক বেতন ৮ তারিখের মধ্যে পরিশোধ এবং ভাতা বৃদ্ধির দাবিতে গতকাল শনিবার সকালে কারখানা এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল বের করে সিনহা গার্মেন্টের শ্রমিকরা। তারা কারখানার প্রধান ফটকের বাইরে গিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করার চেষ্টা করলে নিরাপত্তাকর্মী ও পুলিশের বাধার মুখে পড়ে। গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ এসময় কারখানা একদিনের জন্য ছুটি ঘোষণা করে।

তবে রোববার সকালেও শ্রমিকরা কাজে যোগ না দিয়ে কারখানা ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সকাল ৯টা থেকে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে। এ সময় মহাসড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেলা ১১টার দিকে মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরিয়ে দিতে সোনারগাঁ থানা পুলিশের সঙ্গে বিপুল সংখ্যক ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশও অভিযানে নামে। এক পর্যায়ে পুলিশ শ্রমিকদের ওপর জলকামান ও টিয়ারশেল ছুড়লে সংঘর্ষ শুরু হয়।

শ্রমিকরা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এ সময় গোটা কাঁচপুর এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। পুলিশের অভিযানে শ্রমিকরা রাস্তা থেকে সরে গেলেও মহাসড়কের উভয় পাশে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, কাঁচপুরের সিনহা গার্মেন্টে শ্রমিক অসন্তোষের খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ ও থানা পুলিশের কয়েকটি দল ঘটনাস্থলে যায়। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ কারখানার প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিলে শ্রমিকরা বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তারা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এ ব্যাপারে মালিক পক্ষের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা চলছে।

Bellow Post-Green View