চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনার ভ্যাকসিনে ডোপ টেস্টে পজেটিভ?

সামনের বছরই করোনার ভ্যাকসিন পুরোপুরি পৌঁছে যাবে মানুষের হাতে। আর তা পেলেই খেলোয়াড়দেরকে আগেভাগে সরবারহ করবে নিজ নিজ ক্রীড়া সংগঠনগুলো। তবে এই ভ্যাকসিনের উপাদান নিয়ে চিন্তিত বিশ্ব ডোপবিরোধী সংস্থা ওয়াডা (ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি)। প্রশ্ন উঠছে, খেলোয়াড়রা করোনার ভ্যাকসিন নিলে কি ডোপিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত হবেন?

ওয়াডা বিভিন্ন ডোপবিরোধী সংস্থাকে বলেছে, করোনার টিকার মধ্যে কোনও নিষিদ্ধ ড্রাগ আছে কিনা, সেটা ভাল করে পরীক্ষা করে নিতে। ওয়াডা জানিয়েছে, এখনই ভ্যাকসিনের উপাদান নিয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলা সম্ভব নয়। তবে এই টিকার মধ্যে খেলাধুলায় নিষিদ্ধ ড্রাগের উপস্থিতির সম্ভাবনা তারা একেবারেই উড়িয়ে দিচ্ছে না।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এক বিবৃতিতে ওয়াডা জানিয়েছে, ‘আমরা সারাক্ষণ করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছি। এই ভ্যাকসিন নিলে ডোপিংয়ের আওতায় অ্যাথলেটদের পড়তে হবে কিনা, সে বিষয়ে আমরা সারাক্ষণ ভাবনা-চিন্তা করছি। এরকম হতেই পারে, করোনার ভ্যাকসিন নিলে ডোপিংয়ের দায়ে অভিযুক্ত হচ্ছে খেলোয়াড়রা। তবে অ্যাথলেটরা নিশ্চিন্ত থাকতে পারে, ওয়াডা এ ব্যাপারে তাদের পরিষ্কার করে সব জানিয়ে দেবে।’

ওষুধ প্রস্তুতকারী বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে ওয়াডা কথা বলছে। ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ ফার্মাসিউটিকাল ম্যানুফ্যাকচারার্সের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ রেখে চলেছে ওয়াডা। তবে মহামারীর সময়ে ওয়াডাও চায়, ভ্যাকসিন বাজারে এলে খেলোয়াড়রাও যেন তা নেন। কারণ, খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য ওয়াডার কাছেও অগ্রাধিকার পাচ্ছে। আর তাই ওয়াডা বলেছে, ‘আমরা চাই না করোনার ভ্যাকসিন ও ডোপবিরোধী আইনের মধ্যে কোনও মতবিরোধ হোক।’

বিজ্ঞাপন