চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

করোনাভাইরাস: মন্ত্রী যাওয়ার আগে হাসপাতালের ওয়ার্ডজুড়ে রোগীর থুতু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন- এমন সন্দেহে ভারতের একটি হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন কয়েক ব্যক্তি। কিন্তু কোনো কিছুর তোয়াক্কা না করে ওয়ার্ডের ভেতরে যেখানে-সেখানে থুতু ফেলেছেন তারা। শুধু তাই নয়, জানালা দিয়ে বাইরেও থুতু ফেলে ভীতি তৈরি করেন ওই ব্যক্তিরা।

ভারতের আসামের গোলাঘাটে ঘটেছে এই ঘটনা। রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা ওই হাসপাতাল সফরের আগে এই ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

আসামে কোভিড-১৯ আক্রান্ত আটজনের সংস্পর্শে সরাসরি আসা ৪২ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। তারা সবাই দিল্লিতে তাবলীগের সদর দপ্তর নিজামুদ্দিনে একটি সমাবেশে অংশ নিয়েছিলেন। সেই সমাবেশকে এই ছোঁয়াচে রোগ ছড়ানোর একটি কেন্দ্র বলা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রোগীরা চিকিৎসাকর্মীদের উপরও থুতু ফেলার চেষ্টা করেন। কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডের জানালা বন্ধ করার জন্য হাসপাতালের কর্মীদের ভবনের বাইরে দিয়ে উপরে উঠতে হয়।

বিজ্ঞাপন

ওই তাবলীগ জামায়াত থেকে যারা ফিরেছেন, তাদের মধ্যে আরও চারজনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। আসামে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ জন। আক্রান্তদের সবাই নিজামুদ্দিনের তাবলীগ জামায়াতে অংশ নেন।

বিশ্ব শর্মা বলেন, গোলাঘাটের অনেক রোগী যাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে, তারা ভাবছেন তাদের অবস্থা স্থিতিশীল। আমরা জোর করে তাদের এখানে এনেছি। তাই তারা পুরোটা জায়গা জুড়ে থুতু ফেলছেন। তাদেরকে বোঝাতে হবে যে, সব জায়গায় থুতু ফেলা ঠিক নয়। এতে করে রোগটা আরো ছড়াবে।

তিনি বলেন, তারা জানালা দিয়েও থুতু ফেলছে শুনে কষ্ট পেলাম। এসব রোগীদের সচেতন হতে হবে। আর সমাজের এসব রোগীর সঙ্গে খারাপ ব্যবহারের সুযোগ নেই।

পুরো ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ৮৬ জন। আর নিশ্চিত করোনা আক্রান্ত তিন হাজারেরও বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে আক্রান্ত হয়েছে ৪৭৮ জন।