চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

কক্সবাজার জেলা পরিষদ বাংলোতে অফিস সহকারির মৃতদেহ

Nagod
Bkash July

কক্সবাজার জেলা পরিষদের ডাক বাংলো থেকে অফিস সহকারি আয়ুব আলী (৩৭) এর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে নিহতের স্ত্রী দাবি করেছেন, তার স্বামীর হত্যাকাণ্ড পরিকল্পিত।

বুধবার বিকেল চারটার দিকে জেলা পরিষদের ডাক বাংলোর ১৯ নং কক্ষ থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত আয়ুব কক্সবাজারের চকরিয়া পৌর এলাকার হরিয়াঘোনা এলাকার সৈয়দ হোসেনের ছেলে। তিনি জেলা পরিষদের প্রধান সহকারী রেজাউলের অফিস সহকারী বলে জানা গেছে।

ডাক বাংলোর কেয়ারটেকার জাফর বলেন, দুপুর ১টা ১০ এর দিকে আমার কাছ থেকে চাবি নিয়ে রুমে যায়। তারও কিছুক্ষণ পর আমি উপরে গেলে দরজা খোলা দেখে প্রবেশ করি। তখন তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পাই।

নিহত আয়ুবের স্ত্রী মমতাজ বেগম বলেন, রাতে তার স্বামী শহরের বাহারছড়ার বাসায় ছিল। সকাল ১১টার দিকেও বাসায় যায়। সেখান থেকে অফিসে এসেছে। পরে দুপুর দুইটার দিকে ডাক বাংলোর স্টাফ জাফর আমাকে ফোন করে বলেন চিফ রেজাউল আমাকে ডেকেছে। পৌনে চারটার দিকে ১৯ নম্বর কক্ষে আমার স্বামীর লাশ দেখতে পেয়েছি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দিনে দুপুরে একটা মানুষ কী করে আত্মহত্যা করতে পারে। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছে রেজাউল। স্বামী হত্যার বিচারও দাবি করেন মমতাজ বেগম।’

কক্সবাজার সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোশাররফ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া লাশ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যাচ্ছে না। তাই ময়না তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর হত্যা না আত্মহত্যা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

BSH
Bellow Post-Green View