চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

একাদশ শ্রেণিতে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম: প্রভাব খাটিয়ে ভর্তির সুযোগ নেই

একাদশ শ্রেণীতে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম চালু হওয়ায় প্রভাব খাটিয়ে কিংবা অনৈতিকভাবে কাউকে ভর্তি করার সুযোগ নেই। এবছরই প্রথমবারের মতো এই ভর্তি কার্যক্রমের সঙ্গেই শিক্ষার্থীকে বোর্ড রেজিস্ট্রেশন করিয়ে দেয়া হচ্ছে। কলেজ পরিবর্তন করলেও একজন শিক্ষার্থীকে ভর্তির জন্য শুধু একবারই টাকা দিতে হবে।

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণীতে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয় ৯ মে দুপুর ২ টা থেকে। প্রতি ঘণ্টায় আবেদন পড়ছে প্রায় ছয় হাজার । বাংলাদেশ আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটি বলছে, মোবাইলে এসএমএস’র চেয়ে অনলাইনেই বেশি আবেদন জমা পড়ছে।

বিজ্ঞাপন

অনলাইনে শিক্ষার্থীরা এবার ১০টি কলেজ পছন্দ করতে পারছে। ফি দিতে হচ্ছে ১শ’ ৫০ টাকা। আর এসএমএস’র ক্ষেত্রে প্রতিটি কলেজের জন্য ১শ’ ২০ টাকা করে দিয়ে আলাদা আবেদন করতে হবে। একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির সঙ্গে করিয়ে নেয়া হচ্ছে বোর্ড রেজিস্ট্রেশনও।

বিজ্ঞাপন

তৃতীয়বারের মতো অনলাইন ভর্তি কার্যক্রমে কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়। কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ কায়কোবাদ জানান , এই কার্যক্রম দেশের ভব্যিষ্যত প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

২৬ মে পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। ৫ জুন প্রথম পর্যায়ে, ১৩ জুন দ্বিতীয় পর্যায়ে এবং ১৮ জুন তৃতীয় পর্যায়ের নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশ করা হবে। ২০ থেকে ২২ জুন এবং ২৮ থেকে ২৯ জুন দুই দফায় শিক্ষার্থীদের ভর্তি হতে হবে।

ক্লাশ শুরু হবে ১ জুলাই। এবারের উত্তীর্ণরা ছাড়াও ২০১৫ ও ২০১৬ সালে মাধ্যমিক পাস করা শিক্ষার্থীরা একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হতে পারবে।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে: