চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

একবার ব্যবহার উপযোগী প্লাস্টিক নিষিদ্ধের দাবি

পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্য রক্ষায় অবিলম্বে একবার ব্যবহার উপযোগী প্লাস্টিক নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে পরিবেশবাদী ও বিশেষজ্ঞরা।

সরকারের প্রতি এমন আহ্বান জানিয়ে তারা বলছেন, প্লাস্টিক নিষিদ্ধে বিভিন্ন সংগঠনের সাথে প্লাস্টিক দূষণের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা করতে হবে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘আন্তর্জাতিক প্লাস্টিক ব্যাগ মুক্ত দিবস ২০২১’ উপলক্ষ্যে এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন-এসডো, প্লাস্টিক সলিউশনস্ ফাণ্ড – পিএসএফ এর সহযোগিতায়, “বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক ফর ব্যানিং সিঙ্গেল-ইউজ প্লাস্টিক” শীর্ষক একটি বিএফএফপি মেম্বার নেটওয়ার্ক চালু করার জন্য একটি ভার্চুয়াল সেশনের আয়োজনে আজ বক্তরা এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

‘ব্রেক ফ্রী ফ্রম প্লাস্টিক’ গ্ৰুপে সদস্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে এবং বিশেষত একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক পণ্য নিষিদ্ধ করার জন্য এই নেটওয়ার্কটি গঠন করা হচ্ছে। বাংলাদেশে একবার ব্যবহার উপযোগী প্লাস্টিক নিষিদ্ধ করার জন্য এবং একটি আইন গঠনের লক্ষ্যে এই নেটওয়ার্কটি প্রেশার গ্রুপ হিসেবে কাজ করবে।

এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন-এসডোর মহাসচিব ড. শাহরিয়ার হোসেন বলেন, ‘‘সরকারের পক্ষে একা এই পরিস্থিতি পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। বিকল্প সমাধানের জন্য আমাদের একসাথে কাজ করা দরকার। তবুও পথটি একটি স্বপ্নই রয়ে গেছে, কারণ আমরা গ্রাহক হিসেবে প্লাস্টিকের ব্যবহারের বিরূপ প্রভাব সম্পর্কে সচেতন নই।’’

এসডোর নির্বাহী পরিচালক সিদ্দীকা সুলতানা বলেন, প্লাস্টিক বর্জ্যের পরিবেশগতভাবে নিরাপদ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে সরকারের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। বিভিন্ন সংস্থা যেমন; প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন, গ্রিন সেভারস, পরিবেশগত ও ভৌগলিক তথ্য পরিষেবা কেন্দ্র (সিইজিআইএস), মাটি ও পরিবেশ কেন্দ্র, মানবাধিকার ও উন্নয়ন ফোরাম-সিইএইচআরডিএফ অনলাইন ভিত্তিক সেমিনারে অংশ নিয়েছেন এবং নেটওয়ার্ক এ যোগ দিতে সম্মতি দিয়েছেন। তারা বাংলাদেশের একবার ব্যবহার উপযোগী প্লাস্টিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পরিস্থিতি সম্পর্কে তাদের মতামত বিনিময় করেন এবং টেকসই পরিবেশের জন্য একত্রে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

‘আন্তর্জাতিক প্লাস্টিক ব্যাগ মুক্ত দিবস ২০২১ উপলক্ষ্যে, এসডো, বিএফএফপি এবং গায়া সম্মিলিতভাবে ’প্লাস্টিক ফ্রি জুলাই’ শীর্ষক মাসব্যাপী ক্যাম্পেইন শুরু করেছে। এসডো দলের সদস্যরা একটি সচেতনতামূলক পোস্টার এবং ভিডিও প্রকাশ করেছে।