চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইস্কোকে চলে যেতে বলেছে রিয়াল

নিয়মিত মাঠে নামার সুযোগ পান না, তাই ত্যক্ত-বিরক্ত হয়ে রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়তে উশখুশ করতে দেখা গেছে ইস্কোকে। শেষ পর্যন্ত তার ইচ্ছাই পূরণ হচ্ছে। শীতকালীন দলবদলে স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডকে দল খুঁজতে বলেছে রিয়াল।

রিয়াল নয়, ইস্কোর মূল সমস্যা হচ্ছে কোচ জিনেদিন জিদানের সঙ্গে। নিজের ফর্মেশনের সঙ্গে মানানসই নয় বলে হামেস রদ্রিগেজ ও গ্যারেথ বেলের মত স্ট্রাইকারকে ছেড়ে দিতে বিশেষ চিন্তা করেননি ফরাসি কোচ। ইস্কোও এখন সেই ফাঁদে পড়ে গেছেন। বদলি হিসেবেও এখন খুব একটা মাঠে নামতে দেখা যায় না মালাগার হয়ে নজরকাড়া এই স্ট্রাইকারকে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

রিয়াল ছেড়ে ভালোই আছেন হামেস রদ্রিগেজ-বেলরা। বিশেষ করে রিয়ালের সাবেক কোচ কার্লো আনচেলত্তির সঙ্গে এভারটনে দারুণ এক জুটি গড়েছেন রদ্রিগেজ। গুঞ্জন আছে, সেই এভারটন এবার ইস্কোকেও পেতে আগ্রহী। যদিও এই গুঞ্জন শোনার পর ‘ফালতু’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন এভারটনের ইতালিয়ান কোচ।

এর বাইরে ইস্কোকে দলে পেতে আর কোনো ক্লাবের আগ্রহের কথা শোনা যায়নি। ২০২২ সাল পর্যন্ত চুক্তি থাকায় তার জন্য ৩০ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি বেঁধে দিয়েছে রিয়াল। ২০১৩ সালে ঠিক এই দামেই মালাগা থেকে তাকে কিনেছিলো লস ব্লাঙ্কোসরা।

কম-বেশি যাই হোক, ইস্কোকে একদম বিনামূল্যে ছাড়ছে না রিয়াল। তাকে বিক্রি করে একসঙ্গে দুই পাখি মারবে মাদ্রিদের জায়ান্টরা। বসিয়ে বসিয়ে বেতন দেওয়া থেকে নিস্তারও পাওয়া যাবে আবার আগামী গ্রীষ্মে দলবদলের অ্যাকাউন্টেও যোগ হবে অর্থ। সামনের বছর পিএসজি থেকে কাইলিয়ান এমবাপে অথবা বরুশিয়ার আর্লিং হাল্যান্ডকে চায় রিয়াল। সেই দলবদলে ভালো অর্থ খরচ করার ইচ্ছা আছে ক্লাবটির।