চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইরানের বিরুদ্ধে তেলবাহী ট্যাংকারে হামলার অভিযোগ ইসয়ায়েলের

আরব সাগরের ওমান উপকূলে একটি তেলের ট্যাংকারে হামলার পেছনে ইরানের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ইসরায়েল। ওই হামলায় ট্যাংকারের দুজন ক্রু নিহত হয়েছেন। নিহতদের একজন ব্রিটিশ নাগরিক, এবং অন্যজন রোমানিয়ার নাগরিক।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানা গেছে, লন্ডনভিত্তিক জোডিয়াক ম্যারিটাইম কোম্পানি পরিচালিত ‘এমভি মারসার স্ট্রিট’ নামের ট্যাংকারটি গত বৃহস্পতিবার আরব সাগর হয়ে ওমানের উপকূলের দিকে যাচ্ছিল। তখনই ট্যাংকারে হামলার ঘটনা ঘটে। জোডিয়াক ম্যারিটাইম কোম্পানিটির মালিক ইসরায়েলের ধনকুবের আইয়াল অফার।

জোডিয়াক ম্যারিটাইম কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে—কী ঘটনা ঘটেছিল, তা জানার চেষ্টা চলছে।

তবে, ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াইর ল্যাপিড গতকাল শুক্রবার ট্যাংকারে হামলার পেছনে ‘ইরানি সন্ত্রাসবাদ’-কে দায়ী করেন।

বিজ্ঞাপন

ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ইরান কেবল ইসরায়েলের সমস্যা নয়। বিশ্ব চুপ করে থাকলে হবে না।’

ট্যাংকারে হামলার ঘটনাটি ওই অঞ্চলে উত্তেজনা গুরুতর পর্যায়ে বাড়াবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ হামলায় একটি ড্রোনের সংশ্লিষ্টতা ছিল বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ সরকারের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ট্যাংকারে হামলার ঘটনায় যুক্তরাজ্য ‘অবিলম্বে সত্য সামনে আনার’ চেষ্টা করছে।

ব্রিটিশ সরকারের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ওমান উপকূলে পৌঁছার সময় একটি ট্যাংকার-সংশ্লিষ্ট ঘটনায় একজন ব্রিটিশ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরিবার-পরিজন ও প্রিয়জনদের সঙ্গে আমরাও সমব্যথী।

বিজ্ঞাপন