চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইফতারিতে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে অজ্ঞান পার্টির ছোবল

ইফতারের সময় গণপরিবহণে থাকা সরল যাত্রীদের টার্গেট করে ইফতারির করার অনুরোধ করে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা। সরল যাত্রীরা সেসময় ইফতারিতে রাজি হলে তাদের ইফতারে চা, ডাব, পানি ও জুস ইত্যাদি বিভিন্ন খাবারের মধ্যে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে অজ্ঞান করে সর্বস্ব লুটে নেয় অজ্ঞান পার্টি।

রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ এসব তথ্য জানায়।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে অজ্ঞান পার্টির ৩২ সদস্য এবং ২৯ জন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তারের তথ্য জানাতে ডিবি’র এই সংবাদ সম্মেলন।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ৯২টি লেক্সোটেনিল ও ৪০টি লুজিকাম চেতনানাশক ট্যাবলেট এবং ২টি ঝান্ডুবামসহ একাধিক মলমের কৌটা উদ্ধার করে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

ডিবির গোয়েন্দা পূর্ব, পশ্চিম ও দক্ষিণ বিভাগ, সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ এ অভিযানে অংশ নেয়।

ডিবি’র প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর শ্যামলী, জুরাইন, কমলাপুর ও নিউমার্কেট এলাকা থেকে অভিযানে ছিনতাইকারী ও অজ্ঞান পার্টির মোট ৬১ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে অজ্ঞান পার্টির ৩২ জন এবং ২৯ জন ছিনতাইকারী।

তিনি বলেন, গুলিস্থান, নিউমার্কেট, শাহবাগ থেকে গ্রেপ্তারকৃত ছিনতাইকারীরা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা যাত্রীদের এবং মার্কেটে আসা ক্রেতাদের সুকৌশলে ও সরলতার সুযোগ নিয়ে নাকে, মুখে, চোখে চেতনানাশক মলম লাগিয়ে মোবাইল, ব্যাগ ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়।

ডিবি প্রধান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা জানিয়েছে তারা রাজধানীতে সরল ও নিরীহ যাত্রীদের টার্গেট করে কৌশলে আলাপচারিতার মাধ্যমে ইফতারির খাদ্যদ্রব্যসহ চা, ডাব, পানি ও জুস ইত্যাদি বিভিন্ন খাবার খাওয়ার অনুরোধ করে। রাজি হলে যাত্রীদের ট্যাবলেট মিশ্রিত চা, ডাব, পানিও জুস ইত্যাদি খাওয়ায়। খাবার খেয়ে যাত্রীরা অজ্ঞান হলে তাদের সঙ্গে থাকা টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন