চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আয়ুর্বেদ ওষুধে ৫ থেকে ১৪ দিনেই ভালো হবে করোনা’

পতঞ্জলির সিইও’র দাবি, ১০০ শতাংশ অনুকূল ফল মিলেছে

পতঞ্জলির ওষুধে ৫ থেকে ১৪ দিনেই ভালো হবে করোনাভাইরাস। এমনটাই জানিয়েছেন পতঞ্জলি আয়ুর্বেদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আচার্য বালাকৃষ্ণ।

তার দাবি, তাদের সংস্থা একটি ওষুধ তৈরি করেছে। যা পাঁচ থেকে ১৪ দিনের মধ্যে করোনা রোগীকে সুস্থ করে তোলে।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

আচার্য বালাকৃষ্ণ ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআইকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর আমরা বিজ্ঞানীদের একটি দল গঠন করি। প্রথম সিমুলেশন করা হয় এবং সেই যৌগগুলি চিহ্নিত করা হয়, যেগুলি করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারবে এবং দেহে ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে পারবে। তারপর কয়েকশো করোনা আক্রান্ত রোগীর উপর ক্লিনিক্যাল কেস স্টাডি করি এবং আমরা তাতে ১০০ শতাংশ অনুকূল ফল পেয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের ওষুধ নেওয়ার পর করোনা রোগীরা পাঁচ থেকে ১৪ দিনের মধ্যে ভালো হয়ে উঠেছেন এবং করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তাই আমরা বলতে পারি, আয়ুর্বেদের মাধ্যমে করোনার চিকিৎসা সম্ভব। আমরা এখন নিয়ন্ত্রিত ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চালাচ্ছি। আগামী চার-পাঁচদিনের মধ্যে প্রমাণ এবং পরিসংখ্যান প্রকাশ করব আমরা।’

পতঞ্জলির সিইও’র দাবি, এখন নিয়ন্ত্রিত ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে এবং এক সপ্তাহের কম সময়ে প্রমাণ প্রকাশ করা হবে। তবে কোথায় সেই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে, সেই রহস্য ফাঁস করেননি তিনি।

চলতি বছরের এপ্রিলের শেষের দিকে করোনা যোদ্ধাদের দেহের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আয়ুর্বেদিক এবং হোমিওপ্যাথি ওষুধের জন্য ২.৪৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছিল উত্তরাখণ্ড সরকার।