চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আসামের গ্যাসকূপে বিস্ফোরণ, আহত ৩ বিদেশি

চার সপ্তাহের মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসার কথা থাকলেও ৪৪ দিন পর বড়সড় বিস্ফোরণ হয়েছে আসামের তিনসুকিয়ার বাঘজানে অয়েল ইন্ডিয়া লিমিটেডের গ্যাসকূপে। ঘটনায় আহত হয়েছেন তিন বিদেশি বিশেষজ্ঞ।

অয়েল ইন্ডিয়া লিমিটেডের মুখপাত্র ত্রিদীপ হাজারিকা জানিয়েছেন, বুধবার সকালে পাঁচ নম্বর কূপের কাছে একটি বিস্ফোরণ হয়।

বিজ্ঞাপন

সেই সময় কূপের কাছে ছিল বিদেশি বিশেষজ্ঞদের দল। তারা আগুন নেভানোর কাজ করছিলেন। বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন তিনজন বিশেষজ্ঞ। তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আপাতত আগুন নেভানোর কাজ বন্ধ আছে।

এর আগে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, দুই সপ্তাহ ধরেই গ্যাস বের হচ্ছিল কূপটি থেকে।১০ জুন সেখানে হঠাৎ আগুন লেগে যায়। আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় দমকল বাহিনী। তাদের মধ্য থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হন দুই কর্মী। বুধবার সকালে একটি জলাশয়ের পাশ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

গ্যাসকূপের আগুন নিয়ন্ত্রণে সহায়তার জন্য সিঙ্গাপুর থেকে তিন সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল ভারতে পৌঁছে কাজ শুরু করেছিল।

বিজ্ঞাপন

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিল, আগুন নিয়ন্ত্রণে চার সপ্তাহ সময় লাগতে পারে।

দমকলকর্মীদের পাশাপাশি ভারতীয় বিমানবাহিনীর সদস্যরাও আগুন নেভানোর কাজ করছেন। আসাম সরকারের অনুরোধে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী ও এনডিআরএফ। আধা-সামরিক বাহিনী দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে গোটা এলাকা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আগুনের লেলিহান শিখা ৩০ কিলোমিটার দূর থেকেও দেখা যাচ্ছিল। এ কারণে আশপাশের এলাকার মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। আগুনে পুড়ে গেছে কূপের আশপাশের অসংখ্য গাছপালা, বাড়িঘর ও জমির ফসল।

যে গ্যাসকূপে আগুন লেগেছে, তা ডিব্রু সাইখোয়া জাতীয় উদ্যান ও মাগুরি মোট্টাপাং জলাভূমির কাছে অবস্থিত হওয়ায় পরিবেশ এবং জীববৈচিত্র্য নিয়েও উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারকে ৩০ হাজার রুপি করে আর্থিক সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে অয়েল ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ।