চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আর কতবার বলবো, মেসি বার্সাতেই সুখী’

অবশেষে মুখে হাসি ফুটেছে রোনাল্ড কোম্যানের। মঙ্গলবার রাতে রিয়াল ভ্যালাদোলিদের মাঠে মেসির এক গোল ও এক অ্যাসিস্টে ৩-০ ব্যবধানের জয় তুলেছে বার্সেলোনা। টানা কয়েক ম্যাচে প্রতিপক্ষের মাঠে ফাঁদে পড়ার পর জয় নিয়ে ফেরায় কোচের মুখে অধিনায়ক লিওনেল মেসির স্তুতি।

অনেকদিন বাদে মেসি নিজেও ভ্যালাদোলিদ ম্যাচে ছিলেন মৌসুমের সেরা ফর্মে। সারাক্ষণ প্রতিপক্ষ অর্ধে ভীতি ছড়িয়ে গেছেন। নিজে করেছেন এক গোল, করিয়েছেন আরেকটি, অন্য গোলটির মূল কারিগরও তিনিই। বার্সার জার্সি গায়ে নিজের ৬৪৪ নাম্বার গোলটি দিয়ে এক ক্লাবে সর্বোচ্চ গোলে ছাড়িয়ে গেছেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের আগেরদিন সাক্ষাৎকারে মেসি নিজেই বলেছিলেন, বার্সাতে সুখেই আছেন। খেলাতেও যেন সেটার ছাপ মিলল। ম্যাচ শেষে কোম্যানের কথাতেও তারই প্রতিচ্ছবি ভেসে উঠল।

বিজ্ঞাপন

‘আমি আগেও বলেছি, মেসি এখানেই সুখে আছে। তার সৃজনশীলতার জন্য সে আমাদের সেরা ফুটবলার। তার আশেপাশে এখন সেরা ফুটবলাররাও আছে।’

ধুঁকতে থাকা দলকে ফর্মে ফেরাতে ভ্যালাদোলিদের বিপক্ষে ছকে পরিবর্তন এনেছিলেন কোম্যান। ৪-২-৩-১ ফর্মেশন ভেঙে মেসিদের খেলিয়েছেন ৩-৪-২-১ ফর্মেশনে। তরুণ প্রতিভাবান মিডফিল্ডার পেদ্রির সঙ্গে ছিলেন জুভেন্টাস থেকে এ মৌসুমেই আসা অভিজ্ঞ মিরালেম পিয়ানিচ।

ম্যাচে মেসির সঙ্গে পেদ্রির বোঝাপড়াটা দারুণভাবে চোখে পড়েছে। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের গোলটা এসেছে পেদ্রির দারুণ এক ব্যাকহিল অ্যাসিস্ট থেকে। ম্যাচ শেষে তরুণ মিডফিল্ডারকেও প্রশংসায় ভাসালেন কোম্যান।

‘পেদ্রিকে মাঝমাঠে রাখলে দারুণ খেলে। পিয়ানিচকেও তার সুযোগের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে, আর সুযোগ পেয়েই ভালো খেলেছে।’