চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আবারও প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন মোদি?

বিশ্বের সবচেয়ে বড় গণতান্ত্রিক দেশ ভারতের জাতীয় নির্বাচন শেষ হলো। রোববার নির্বাচন শেষে বুথ ফেরত জরিপ বলছে, আবারও জয়ী হতে চলেছে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে ভারতীয় জনতা পার্টি-বিজেপি।

এই জরিপ সঠিক হলে দ্বিতীয়বারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। ভোটাররা ভোট দিয়ে কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার সাথে সাথে তাদের মতামত নিয়ে এসব জরিপ করা হয়ে থাকে।

বিজ্ঞাপন

বিবিসি জানায়, রোববার ভোট গ্রহণের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে সপ্তম ধাপের নির্বাচন। ভোটের ফলাফল ঘোষণা করা হবে ২৩ মে। মোদির দলের জয় নিয়ে পূর্বাভাস দেয়া হলেও বিশ্লেষকরা বলছেন, অতীতেও অনেক জরিপ ভুল প্রমাণিত হওয়ার নজির রয়েছে।

গত ১১ এপ্রিল শুরু হয় ৯০ কোটি ভোটারের দেশের নির্বাচন। মোট সাত ধাপ অনুষ্ঠিত হয় তা।

বিজ্ঞাপন

ভোটারদের নিয়ে করা চারটি জরিপে দেখা গেছে, বিজেপি নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক আল্যায়েন্স বড় জয় পেতে যাচ্ছে। ভবিষ্যদ্বাণী করা হচ্ছে যে নরেন্দ্র মোদির বিজেপি ততগুলো আসনেই জিতবে যতগুলো জিতেছিল ২০১৪ সালের নির্বাচনে এবং সরকার গঠন করবে।

জরিপের রায়ে বলা হচ্ছে, ৫৪৩ আসনের মধ্যে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক আল্যায়েন্স পাবে ৩০২ আসন। আর কংগ্রেস এবং তাদের জোট পাবে ১২২টি। যেখানে সরকার গঠনের জন্য দরকার ২৭২ আসন।

জরিপে আরও বলা হচ্ছে, উত্তর প্রদেশ, উড়িষ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গে আসন হারানোর যে শঙ্কা বিজেপির ছিল, সেখানেও তারা ভালো করবে। পশ্চিমবঙ্গে ৪২টি আসনের মধ্যে মমতা ব্যানার্জীর তৃণমূল কংগ্রেস পাবে ২৬টি। আর বিজেপি গতবার গতবার যেখানে পেয়েছিল দুইটি আসন, এবার তা দুই অংকে গিয়ে দাঁড়াবে ১৪টিতে।

আবার টাইম নাও-ভিএমআর জরিপের বরাতে টাইমস অফ ইন্ডিয়া জানায়, লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন জোট-এনডিএ পেতে যাচ্ছে ৩০৬টি আসন। জরিপ আরও বলছে,  ইউনাইটেড প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্স-ইউপিএ পাবে ১৩২টি আসন।

মমতা ব্যানার্জীর প্রতিক্রিয়া
ইভিএম কারচুপির লক্ষ্যে বুথফেরত জরিপের গাল-গপ্পো সাজানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। বুথফেরত জরিপের পর নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে তিনি টুইটারে বলেন, আমি এই বুথফেরত সমীক্ষার গাল-গপ্পো বিশ্বাস করি না। এসব গপ্পো ছড়িয়ে দিয়ে হাজার হাজার ইভিএম পাল্টে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। আমি সব বিরোধীদলকে ঐক্যবদ্ধ, শক্তিশালী এবং সাহসী থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। এই লড়াইয়ে আমরা সবাই একসঙ্গে লড়বো।