চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আত্মহত্যা প্রতিরোধে শর্টফিল্ম প্রদর্শনী ও কাউন্সেলিং

দিনকে দিন আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ছে। বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে এই প্রবণতা বেশি। এই প্রবণতা প্রতিরোধ করতে শর্টফিল্ম প্রদর্শনী ও কাউন্সেলিংয়ের আয়োজন করেছেন ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে (ইউ.ইউ.বি)।

আয়োজকরা বলছেন, এর মাধ্যমে সচেতনা বাড়িয়ে আত্মহত্যা কমানো সম্ভব। বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) গাবতলী, মিরপুরে অবস্থিত ইউনিভার্সিটির নিজস্ব ক্যাম্পাস মিলনায়তনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি শুরু হবে বেলা ১২ টায়।

বিজ্ঞাপন

সিনেমাদারের ব্যবস্থাপনায় দুটি শর্ট ফিল্ম ‘সুইসাইড নোট’ ও ‘সি ইউ’ প্রদর্শনীর পর আত্মহত্যা প্রতিরোধে বক্তব্য রাখবেন হাজেরা খাতুন (ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট ফর এন্টি সুইসাইড প্রোগ্রাম)। অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা।

থাকবে প্রশ্ন-উত্তর পর্ব। আলোচনায় অংশ নেবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মকবুল আহমেদ খান, রেজিষ্টার এ.এফ.এম গোলাম হোসেন এবং অ্যাডমিশন ডাইরেক্টর সৈয়দ মাহবুব।

সিনেমাদারের কর্ণধার, নির্মাতা ও প্রযোজক খান জেহাদ বলেন, ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটির আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার সাথে আমরা মূলত আত্মহত্যা প্রতিরোধে ভূমিকা রাখতে পারে এমন দুটি ছবি প্রদর্শনের ব্যবস্থা করেছি। এবার প্রথমবারের মতো তবে এরকম আয়োজন পর্যায়ক্রমে দেশের সমস্ত শিক্ষা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও নিয়মিতভাবে করে যাওয়া আমাদের লক্ষ্য।

এ প্রসঙ্গে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড. ফারজানা আলম বলেন, ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২২হাজারের বেশি। এই বড় সংখ্যক তরুণ প্রজন্মের উচ্চশিক্ষা দিচ্ছি আমরা। লক্ষ্য করেছি যে, যেসব শিক্ষার্থীর রেজাল্ট খারাপ হয় এবং যারা ঝরে যায় তারা অনেক বেশি হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। যা আত্মহত্যায় প্ররোচোতি করতে পারে।

আত্মহত্যা একদিনে বা হঠাত ঘটে যাওয়ার মতো ব্যাপার নয়, এর আগে অনেকগুলো স্তর আছে। তরুণরা সেগুলো যাতে সহজভাবে মোকাবিলা করতে মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকে তাই ই.ইউ.বির এই আয়োজন।

Bellow Post-Green View