চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আগে আমরা বলতাম, এখন ওরা বলে’

বিশ্ব অঙ্গনে পা রাখার পর থেকে একটু একটু করে এগিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন না করতে পারলেও এখন যেকোনো দলকে হারানোর সক্ষমতা অর্জন করেছে। বাংলাদেশের ক্রিকেট যে অনেকদূর এগিয়েছে কথাটা এখন শুধু বাংলাদেশের মানুষই বলে না, বাইরের মানুষও বলে এবং সেটা অন্যরা এখন বাংলাদেশিদের ডেকে ডেকেই বলে।

চলতি বিশ্বকাপের মিশন শুরুর আগে থেকেই দলের সঙ্গে ছিলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। প্রথম দুটি ম্যাচ মাঠে বসে দেখেছেন। বিশ্বকাপের দেশে পা রেখে এবার নতুন একটা অভিজ্ঞতা হয়েছে তার। সেই নতুন অভিজ্ঞতা হল- এখন অন্যরা তাকে ডেকেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের উন্নতি কথা বলছেন।

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ড থেকে শুক্রবার দেশে ফিরেছেন নাজমুল হাসান। দেশে ফিরে নিজের বাসভবনে কথা বলেছেন সাংবাদিকদের সঙ্গে। সেখানেই অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন বোর্ড সভাপতি।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে সাউথ আফ্রিকাকে তিন বিভাগে টেক্কা দিয়ে হারায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অল্প পুঁজি নিয়েও শেষপর্যন্ত লড়াই করে। টাইগারদের এমন লড়াকু মনোভাবটাই নজর কেড়েছে বিশ্বের।

বিজ্ঞাপন

সেই কথা উল্লেখ করে নাজমুল হাসান বললেন, ‘খেলার পর থেকে আমি দেশে ফেরার আগ পর্যন্ত যত জনের সঙ্গে দেখা হয়েছে, প্রত্যেকে বাংলাদেশ দলের প্রশংসা করেছে। তারা এটা বলছে যে, এর আগে কখনো বাংলাদেশকে এতটা আত্মবিশ্বাসী দল মনে হয়নি তাদের। এটা ওরা স্বীকার করছে। সুতরাং এখন পর্যন্ত পাওনা এটুকুই।’

সাউথ আফ্রিকাকে হারানোর পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও দারুণ লড়াই। এখন সবমিলিয়ে বাংলাদেশ দল নিয়ে একটা আলাদা রব উঠেছে। এই ম্যাসেজটা কীভাবে, কতদূর ছড়িয়েছে বা বিসিবি প্রধান হিসেবে আপনার আগের বা এখনকার অবস্থা থেকে কীভাবে নিয়েছেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল হাসান বলেন, ‘আমরা একটা কথা আগেও বলেছি, বাংলাদেশ দল উন্নতি করেছে। কিন্তু আমরা এখনো বেস্ট দল হইনি। ওই জায়গায় আমাদের এখনো কমতি আছে। আর এটা আমাদের মানতেই হবে। আমরা এখনো সেরা দল না। তবে আমরা যেকোনো দলকে হারানোর সক্ষমতা রাখি। দুইটা দুই জিনিস।’

আগের দলগুলোর চেয়ে এবারের দল এগিয়ে উল্লেখ করে বোর্ড সভাপতির বক্তব্য, ‘অন্যান্য বিশ্বকাপের চেয়ে এবারের দলটা অনেকবেশি ভারসাম্যপূর্ণ। তাদের আত্মবিশ্বাস আছে এবং সামর্থ্যও আছে। সেদিক থেকে চিন্তা করলে দলটা ভালো এবং সেটা আমরা বলছিলাম। কিন্তু এখন ওখানে গিয়ে যেটা দেখছি, প্রত্যেকটা দেশ একটা কথাই বলছে, ওদের কাছে এটাকে একটা নতুন বাংলাদেশ মনে হচ্ছে। সকলেই বলে, যার সাথে দেখা হয়, সে-ই বলে এটা নতুন বাংলাদেশ, যারা যে কাউকে হারাতে পারে। আগে কথাটা আমরা বলতাম এখন ওরা বলে।’

বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শনিবার স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

Bellow Post-Green View