চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাবি শিক্ষক তাহের হত্যা মামলার আপিল শুনানি শুরু হবে কবে?

৬ বছরেও শুরু হয়নি রাবি শিক্ষক তাহের হত্যা মামলার আপিল শুনানি

ছয় বছরেও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক এস তাহের হত্যা মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়নি। এ মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি করে আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেছেন, সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে আপিল শুনানির উদ্যোগ নেবেন তারা।

বিজ্ঞাপন

২০০৬ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রাতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক এলাকার পশ্চিম ২৩/বি বাসা থেকে নিখোঁজ হন অধ্যাপক তাহের। পরে ৩ ফেব্রুয়ারি সকালে নিজ বাসার পেছনের সেপটিক ট্যাংক থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে অধ্যাপক তাহেরের বাসার কেয়ারটেকার জাহাঙ্গীর এবং জামায়াতপন্থি শিক্ষক মিয়া মোহাম্মদ মহিউদ্দিনকে আটক করে পুলিশ।

হত্যার ঘটনায় নগরীর মতিহার থানায় মামলা করেন শিক্ষক তাহেরের ছেলে সানজিদ আলভী।

২০০৭ এর ১৮ই মার্চ মিয়া মহিউদ্দিন এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেসময়ের ছাত্র শিবিরের সভাপতি মাহবুবুল আলম সালেহীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

পরে রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ২০০৮ সালের ২২শে মে শিক্ষক মিয়া মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, কেয়ারটেকার জাহাঙ্গীর আলম, জাহাঙ্গীরের ভাই শিবিরকর্মী আব্দুস সালাম ও নাজমুল ইসলামের মৃত্যুদণ্ডাদেশ এবং অন্য দুই আসামি মাহবুবুল আলম সালেহী ও জাহাঙ্গীরের বাবা আজিমুদ্দিনকে খালাস দেন। রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে আসামিরা।

৫ বছর পর ২০১৩ সালের ২১শে এপ্রিল হাইকোর্ট শিক্ষক মিয়া মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ও কেয়ারটেকার জাহাঙ্গীর আলমের মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখে জাহাঙ্গীরের ভাই শিবিরকর্মী আব্দুস সালাম এবং নাজমুল ইসলামের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন।

তবে দু’জনের সাজা কমানোর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে আবেদন করলেও ৬ বছরেও আপিলের শুনানি শুরু হয়নি।

আপিল শুনানির উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে:

Bellow Post-Green View