চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অর্থঋণ মামলায় খালেদা জিয়াকে সমন জারির নির্দেশ

ঢাকার অর্থঋণ আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌস আগামী ১৭ মে তাদেরকে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য আদেশ দিয়েছেন ।

চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারী কোকো মারা যাওয়ার পর তার মা বেগম খালেদা জিয়া, স্ত্রী শর্মিলা রহমান এবং দুই মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমানকে বিবাদী করতে সোনালী ব্যাংকের আবেদন মঞ্জুর করেন অর্থঋণ আদালত। গত ২২ মার্চ আদালত তাদের প্রতি সমনও জারি করেন। কিন্তু ওই সমন ফেরত আসায় এবার পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে সমন দেয়ার নির্দেশ আদালতের।

এর আগে তারেক রহমানকে ওই মামলায় সমন দেয়া হলেও তিনি এর কোন জবাব দেননি বলে জানিয়েছেন সোনালী ব্যাংকের আইনজীবী।

সোনালী ব্যাংকের আইনজীবী হোসনে আরা বেগম বলেন, খালেদা জিয়ার গুলশানের যে ঠিকানা সেই ঠিকানায় আমরা সমন দিয়েছিলাম। ওখান থেকে সমনটা গ্রহণ করে নাই। যার কারণে গরজারিতে ফেরত আসছে।

Advertisement

তিনি আরও বলেন, আজকে ছিলো সমন ফেরত এবং ইস্যু গঠনের জন্য। মাননীয় আদালত বললো যেহেতু সমনটা ফেরত আসছে এইবার পত্রিকায় প্রকাশের জন্য সমন জারি পত্রিকায় দাখিল এবং ইস্যু গঠন একই তারিখে ১৭ মে হবে।

এই আদেশে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মামলার বিবাদীপক্ষ খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া। তিনি বলেন, এইধরনে ক্ষেত্রে বাদি তদবির করবে যে আমার সমন জারি হয় নাই। আমার সমনটা পুনরায় প্রেরণ করা হোক অথবা আইনের বিধান অনুযায়ী এইভাবে প্রেরণ করা হোক।

কোর্টের প্র্রতি অনাস্থা প্রকাশ করে তিনি বলেন, কোর্ট নিজে থেকে স্ব উদ্যোগে এই আদেশ দিয়েছেন। কোর্ট এখানে জাজমেন্ট দেয়ার জন্য আজকেই তৈরি কিনা তা নিয়ে তিনি সংশয় জানান।

উল্লেখ্য, ৪৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা ঋণ খেলাপির অভিযোগে ড্যান্ডি ডাইংয়ের পরিচালক তারেক রহমান ও মরহুম আরাফাত রহমান কোকোসহ ১০ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ২০১২ সালে মামলা করেছিলো ঋণদাতা সোনালী ব্যাংক।