চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন রোধে প্রধানমন্ত্রীর পাশে থাকতে যুবলীগ চেয়ারম্যানের আহ্বান

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেছেন, দুর্নীতিবাজ, রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন ও অন্যায়কারী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেওয়ার এই সময়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর পাশে থাকতে হবে।

যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখা আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার আহবায়ক একে এম তারিকুল হায়দার চৌধুরীর সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা পরিচালনা করেন যুগ্ম আহবায়ক প্রকৌশলী বাহার খন্দকার সবুজ। যুবলীগ চেয়ারম্যান করোনার সময় দেশের মানুষের সহায়তায় যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের নেতাকর্মীরা যেভাবে এগিয়ে এসেছে তার প্রশংসা করেন।

সদ্য ঘোষিত কমিটিকে তারুণ্যনির্ভর কমিটি উল্লেখ করে ফজলে শামস পরশ বলেন, আমরা সাবেক ছাত্র নেতাদের একটি প্লাটফর্মে নিয়ে এসেছি। আমরা শিক্ষিত ছাত্র সমাজের সঙ্গে পেশাজীবীদের সমন্বয় করেছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কার্যক্রমকে সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য যুবলীগের নেতাকর্মীরা ভ্যানগার্ড  হিসেবে কাজ করছে।

ভার্চুয়াল আলোচনা সভার প্রধান বক্তা বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, দুর্নীতির বরপুত্র তারেক রহমান লন্ডনে বসে ষড়যন্ত্র করছে। যুবলীগ তার ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে প্রস্তুত।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এই তারেক রহমানের নেতৃত্বেই ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে আমাদের প্রিয় নেত্রীকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু ষড়যন্ত্র সফল হয়নি। তবে আমরা হারিয়েছিলাম দলের ২৬ জন নিবেদিত প্রাণ নেতাকর্মীকে।

তিনি আরও বলেন, দশ লাখ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠিকে আশ্রয় দিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আজ বিশ্ব মানবতার নেত্রী হিসেবে পরিচিত। দক্ষতা, যোগ্যতা আর বিচক্ষণতা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সারাবিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

আলোচনায় অংশ নেন বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার উপদেষ্টা হাসান রেজা খান।

যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার যুগ্ম আহবায়ক প্রকৌশলী বাহার খন্দকার সবুজ বলেন, প্রবাস জীবনের চরম বাস্তবতার মাঝেও দেশের যে কোন প্রয়োজনে নিজেদের বিলিয়ে দিতে প্রস্তুত যুবলীগ নেতা কর্মীরা। তিনি যুবলীগের নতুন নেতৃত্বকে যুক্তরাষ্ট্র সফরের আমন্ত্রণ জানান।

সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ যুক্তরাষ্ট্র শাখার আহবায়ক একেএম তারিকুল হায়দার চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। যে কোন সংকটময় মুহুর্তে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ নেত্রীর পাশে ছিল এবং থাকবে। যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আমরা, সংগঠনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার নেতা কর্মীরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে যাবে।

ভার্চুয়াল আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেটে বসবাসকারী যুবলীগের শতাধিক নেতা কর্মী অংশ নেন।