চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় এনজিওদের কিস্তি আদায়ে নানা কৌশল

একেএম মহিম, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় থেমে নেই এনজিওদের ক্ষুদ্র ঋণের কিস্তি আদায়। হাওর এলাকায় সাম্প্রতিক ফসলহানীর পর এক বছর কিস্তি আদায় বন্ধ ও সুদমুক্ত নতুন ঋণ দেয়ার ক্ষেত্রে উপেক্ষিত হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা। কিস্তি আদায়ে এনজিও গুলি অবলম্বন করছে নানা কৌশল।

সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে বেশ কিছু বেসরকারি সংস্থার ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম রয়েছে। ব্র্যাক, আশা, শক্তি ও গ্রামীণ ব্যাংকেরই আড়াই লাখ ক্ষুদ্র ঋণ গ্রহিতা রয়েছে। এফআইভিডিবি, পদক্ষেপসহ অন্যান্য সংস্থার রয়েছে আরো এক লাখের বেশি সদস্য।

বিজ্ঞাপন

হাওরের একমাত্র বোরো ফসলহানীর পর কৃষকদের বেঁচে থাকা যেখানে কষ্ট সাধ্য, সেখানে ক্ষুদ্র ঋণের কিস্তি দেয়া তাদের জন্য প্রায় অসাধ্য। কিন্তু বেশ কিছু এনজিও এ অবস্থায়ও কিস্তির টাকা নিচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। বলছেন, সহায়তা দেওয়া ও ঘর নির্মাণের কথা বলে কিস্তি আদায় করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জের শাল্লা সফরের সময় এনজিওগুলোকে মানবিক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন। এনজিও ও ব্যাংক কর্মকর্তাদের সাথে জেলা প্রশাসকের বন্যা পরবর্তি সমন্বয় সভায়ও ঋণের কিস্তি এক বছরের জন্য স্থগিত করার সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাবিরুল ইসলাম।

কিস্তি পরিশোধ না করলে পরে ঋণ দেয়া হবে না বলে হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কৃষকরা।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে:

Bellow Post-Green View