চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সিনেমায় ভাই-বোনের সম্পর্ক: হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়া পাঁচ গল্প

ভাই-বোনের খুনসুটির সম্পর্কে আরও একটা গুরুত্বপূর্ণ দিন রাখিবন্ধন উৎসব। ভাই ও বোনেদের বন্ধন ও সম্পর্ক আরও মজবুত করার দিন। সারাবছর খুনসুটির আড়ালে একে অপরের প্রতি যে অপরিসীম ভালোবাসা আছে, তা প্রকাশ করার দিনই তো রাখি! সনাতন ধর্মে রাখিবন্ধন উৎসব ভাই-বোনের মধ্যে ভালবাসার প্রতীক হিসেবে বিবেচিত হয়।

প্রতি বছর শ্রাবণ মাসের পূর্ণিমা তিথিতে এই উৎসব পালিত হয়। এদিন একদিকে বোনেরা তাদের ভাইয়ের হাতে রঙিন রাখি বেঁধে তাদের ভাইদের সমৃদ্ধি এবং দীর্ঘজীবন কামনা করেন। অন্যদিকে বোনরা পায় উপহার এবং তাদের রক্ষার প্রতিশ্রুতি দেয় ভাইয়েরা৷

ভারতীয় সিনেমাতে প্রায় সময়ই ভাই বোনের মধ্যকার মিষ্টি সম্পর্কের প্রতিচ্ছবি দেখা যায়। বিশেষ করে ভারতীয় বাংলা সিনেমায় এমন বেশ কিছু ভাই-বোনের মিষ্টি সম্পর্কের গল্প রয়েছে যা কখনোই ভোলার মত নয়। চলুন এক নজরে জেনে নেই মনে রাখার মত সেই ৫টি ভাই-বোনের চরিত্র সম্পর্কে-

অপু-দূর্গা
বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে সত্যজিৎ রায় পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘পথের পাঁচালী’। বিভূতি নিজের জীবন থেকেই অনুপ্রাণিত হয়ে ‘পথের পাঁচালী’ লিখেছেন বলে ধারণা করা হয়। এই ছবিতে সত্যজিত অপু এবং তার বড় বোন দুর্গার মধ্যকার ভাইবোনের এক অনন্য ভালোবাসার গল্পকে পর্দায় ফুটিয়ে তুলে ছিলেন। যা আজও দর্শকদের মনে গেঁথে রয়েছে।

নীতা-শঙ্কর
‘দাদা আমি বাঁচতে চাই’ ঋত্বিক ঘটকের ‘মেঘে ঢাকা তারা’ ছবির কেন্দ্রিয় চরিত্র নীতার এই উক্তিটি আজও মনে গেঁথে আছে দর্শকদের। পরিবারের জন্য সব কিছু বির্সজন দেওয়া নীতা চরিত্রটি পরিচালকের এক অনন্য সৃষ্টি। নীতা এমন একটি চরিত্র যে নিজেকে উজাড় করে দিয়ে বাঁচিয়ে রাখতে চায় অন্যদের স্বপ্নগুলোকে। অন্যদিকে নীতার দাদা শংকরকে নিয়ে অন্যরা যখন প্রচণ্ড ক্ষিপ্ত এবং অসন্তুষ্ট, তখন দাদার গায়ক হওয়ার স্বপ্নটিকে সে প্রাণপণে বাঁচিয়ে রাখতে চেয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ঈশ্বর-সীতা
১৯৬৫ সালে মুক্তি পায় বাংলা ভাগ নিয়ে ঋত্বিকের ত্রয়ী চলচ্চিত্র ‘সুবর্ণরেখা’। ষাটের দশকের এই সিনেমাটির কাহিনী মূলত ঈশ্বর ও তার ছোট বোন সীতা নামক দুটি চরিত্রের জীবন সংগ্রামের। যেখানে তাদের ভাইবোনের একে অপরের প্রতি ভালোবাসার প্রতিচ্ছবি ফুটে ওঠে পর্দায়।

সাহেব-বুল্টি
১৯৮১ সালে বিজয় বসুর ‘সাহেব’ সিনেমায় সাহেব ও বুল্টি চরিত্রে দেখা গিয়েছিল তাপস পাল ও মহুয়া রায়চৌধুরী। ছবিতে তাদের ভাই বোনের দুষ্টু মিষ্টি গল্পের প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠেছিল।

বসুন্ধরা-বাপ্পা
রঞ্জন ঘোষ পরিচালিত ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত ছবি ‘আহা রে’। খাবার নিয়ে তৈরি এই ছবিতেও ভাই বোন খুনসুটির গল্প ফুটে উঠেছিল। যা মন ছুঁয়ে গেছে দর্শকের।

বিজ্ঞাপন