চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাড়া ফেলেছে ‘জন্মদাগ’, প্রশংসিত নিশো-মেহজাবীন

মুক্তির এক সপ্তাহেই এক মিলিয়ন ভিউ ছাড়িয়ে গেল ভিকি জাহেদ পরিচালিত চ্যানেল আইয়ের বিশেষ নাটক ‘জন্মদাগ’…

মুক্তির এক সপ্তাহ পূর্ণ হয়নি, অথচ তার মধ্যেই তুমুল সাড়া ফেলেছে চ্যানেল আইয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর বিশেষ নাটক ‘জন্মদাগ’। ভিকি জাহেদের পরিচালনায় নাটকে জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করে তুমুল প্রশংসিত হচ্ছেন নিশো ও মেহজাবীন।

মুক্তির ছয় দিনেই নাটকটি চ্যানেল আইয়ের ইউটিউবে দেখা হয়েছে এক মিলিয়নের বেশি! যা দেখে উচ্ছ্বসিত নির্মাতা, অভিনেতারাও।

বিজ্ঞাপন

চ্যানেল আইয়ের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ছিলো ১ অক্টোবর। বিশেষ দিন উপলক্ষ্যে এবার নাটক নির্মাণের দায়িত্ব পেয়েছিলেন তরুণ নির্মাতা ভিকি জাহেদ। চ্যানেল আইয়ের সাথে এটিই তার প্রথম নাটক। আর প্রথম নির্মাণেই দারুণ প্রশংসিত এই নির্মাতা।

বিজ্ঞাপন

১ অক্টোবর নাটকটি টেলিভিশনে সম্প্রচারের পর চ্যানেল আইয়ের নিজস্ব ইউটিউবে মুক্তি পায়। মুক্তির দিন থেকেই সোশাল মিডিয়ায় সাড়া ফেলে এর গল্প ও প্রধান দুই কেন্দ্রীয় চরিত্র নিশো-মেহজাবীনের অভিনয়। নাটকের জনপ্রিয় গ্রুপগুলোতেও ‘জন্মদাগ’ নিয়ে আলোচনা দেখা যায়।

সৈয়দ নাজমুস সাকিব নামের একজন দর্শক ‘জন্মদাগ’ নিয়ে বিভিন্ন গ্রুপে তার মতামত ব্যক্ত করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘ঈদ, বৈশাখ বা ভ্যালেন্টাইন্স ডে ছাড়া ভাল টিভি প্রোডাকশন খুব কম চোখে পড়ে এখন। সেরকম কমের তালিকায় আসবে ভিকি জাহেদের ‘জন্মদাগ’। ঈদের বাইরে অনেকদিন পর এত ভাল একটা টিভি প্রোডাকশন দেখলাম। গল্প, অভিনয়, মিউজিক, পরিচালনা সব মিলিয়ে খুবই ভালো লাগলো।’

এদিকে চ্যানেল আইয়ের ইউটিউব চ্যানেলে নাটকটি প্রকাশের পর এখন পর্যন্ত দেখা হয়েছে প্রায় ১১ লাখ বার। নাটকটি নিয়ে তিন হাজার মন্তব্য চোখে পড়ে। প্রায় সকলে ‘জন্মদাগ’ এর ভূয়সী প্রশংসা করেন।

এরমধ্যে বেশির ভাগ মন্তব্যকারীরা ‘জন্মদাগ’ এর গল্প আর উপস্থাপন ভঙ্গির প্রশংসা করেন। আবার অনেকে নিশো ও মেহজাবীন এর দারুণ অভিনয়ের প্রশংসা করেন।

শাকিল আহমেদ নামের একজন দর্শক লিখেছেন, নাটকের প্রথমের দিকে আমার খুব রাগ হয়েছিল। কিন্তু নাটকের শেষটা এত সুন্দর হবে কল্পনাও করিনি। সব মিলিয়ে অসাধারণ নাটক দেখলাম। আর এই নাটকের শিক্ষনীয় বিষয় হলো অন্যকে ঠকিয়ে কোনদিন সুখি হওয়া যায়না। ধন্যবাদ জানাই পরিচালক ভিকি ভাইকে এত সুন্দর নাটক উপহার দেওয়ার জন্য।

সুস্মিতা নামের একজন লিখেছেন, শেষ পর্যায়ে এসে পুরো গল্পটা অন্যমোড়ে চলে গেলো। এক কথায় অসাধারণ নাটক। ‘রিভেঞ্জ অব নেচার’-বলতে যে একটা জিনিস আছে, সেটা এই নাটক দ্বারা আবার প্রমাণিত হলো।

নাহিদ হাসান নামের এক দর্শক লিখেছেন, পর্দার আড়ালের মানুষ এর আসল রূপটাই ফুটে উঠেছে। আসলে আমরা খোলা চোখে যা দেখি সব ঠিক না এটার পিছনেও লুকিয়ে থাকে মানুষ এর রূপরেখা।

কলকাতা থেকে দেবলীনা দাস নামের একজন দর্শক লিখেছেন, সেই কবে এই নাটকটির প্রমো দেখেছিলাম। অবশেষে এই জুটির একটি নতুন নাটক দেখার সুযোগ পেলাম। আমি এই জুটির একজন পাগল ভক্ত কলকাতা থেকে। আর এই জুটির নাটক মানে আগে লাইক করি তারপর নাটক দেখি।

রিয়াদ মোল্লা নামের একজন লিখেছেন, অসাধারণ ছিলো নাটকটা। বোঝার মতো অনেক কিছুই নাটকে আছে। বর্তমান সমাজ পরিস্থিতি নিয়ে নাটকটি নির্মিত।

‘আমরা মানুষ বড় অদ্ভুত সৃষ্টি। কারণ আমরা মুক্ত বন্দী। আমরা নিজেদের লোভ লালসা আর স্বার্থপরতার মাধ্যমে নিজেদের মুক্ত ভাবলেও দিন শেষে নিজ নিজ বিবেকের কাছে সবাই আমরা বন্দী।’-‘জন্মদাগ’ এর ইউটিউব লিঙ্ক নিজের ফেসবুকে শেয়ার করে উপরের কথাগুলো লিখেছেন ছোটপর্দার তারকা অভিনেত্রী মেহজাবীন। আর সেখানেও অসংখ্য দর্শকের তুমুল সাড়া। লাইক, কমেন্ট আর রিয়েকশান দিয়েছেন অন্তত ৮১ হাজার মানুষ।