চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাহিত্যের সব শাখায় বিচরণ করেছে একুশ

শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতিতে ভাষা আন্দোলন-৩

বাংলা সাহিত্যে এক নতুন পথের দিশারী ভাষা আন্দোলন। সাহিত্যের সব শাখায় বিচরণ করেছে একুশ। জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান মনে করেন, বাংলা সাহিত্যকে ভাষা আন্দোলন যতো গভীরভাবে প্রভাবিত করেছে, মুক্তিযুদ্ধ ছাড়া অন্যকিছু তা করতে পারেনি।

তবে কালি ও কলম পত্রিকার সম্পাদক আবুল হাসনাত বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিদেশি ভাষা বা আন্তর্জাতিক সাহিত্য অঙ্গনে যে কাজ হয়েছে, ভাষা আন্দোলন নিয়ে ততোটা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

ভাষা আন্দোলনের পর থেকে নানাভাবে বাংলা সাহিত্যে উঠে এসেছে একুশ এবং একুশের চেতনা। কবিতা, গল্প এবং উপন্যাসে ভাষা নির্মাণসহ নতুন পথ খুঁজে দিয়েছে ভাষা আন্দোলন। শুধু বাংলাদেশ নয়, প্রতিবেশী ভারতের বাংলা সাহিত্যেও প্রভাব ফেলেছে একুশ।

ভাষা আন্দোলনের এক বছরের মাথায় ১৯৫৩ সালের মার্চ মাসে প্রকাশ হয় হাসান হাফিজুর রহমান সম্পাদিত ‘একুশে ফেব্রুয়ারি’। ভাষা আন্দোলনের পটভূমিতে ৫৩ সালে মুনীর চৌধুরী রচনা করেন নাটক ‘কবর’। এভাবে বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ কলেছেন শওকত ওসমান, জসীম উদ্দীন, আলাউদ্দিন আল আজাদ, আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ, শামসুর রাহমান, আল মাহমুদ, মহাদেব সাহা, আবদুল গাফফার চৌধুরী, মাহবুব উল আলম চৌধুরী, জহির রায়হান এবং সেলিনা হোসেনের মতো অনেকে।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় অধ্যাপক, শিক্ষাবিদ এবং সাহিত্যিক আনিসুজ্জামান বলছেন, বাংলা সহিত্যে নানাভাবে প্রতিফলিত হয়েছে ভাষা আন্দোলন।

কালি ও কলম সম্পাদক আবুল হাসনাত অবশ্য মনে করিয়ে দিয়েছেন, ফরাসি, ল্যাটিন ও ইংরেজি সাহিত্যে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ উঠে এলেও ভাষা আন্দোলন নিয়ে ব্যাপক কোনো কাজ হয়নি।

সাহিত্যিকরা বলছেন, ভাষা আন্দোলন নিয়ে বাংলা সাহিত্যে যে কাজ হয়েছে, সেগুলোর কিছু অনুবাদ হলেও প্রচারের অভাবে বিদেশী সাহিত্য এর ব্যাপকতা ছড়ায়নি।

আরও দেখুন ভিডিও রিপোর্টে: