চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সাতক্ষীরার শ্যামনগর ও কালিগঞ্জে গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ২

সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগরে ধর্ষণের চেষ্টাকালে যুবকের লিঙ্গ কর্তন করেছে গৃহবধূ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের দূর্গাবাটি গ্রামে। এছাড়া কালিগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সামাদ গাজী (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তিনি উপজেলার চাম্পাফুল এলাকার মৃত বেলায়েত গাজীর ছেলে।

শ্যামনগর থানার ওসি (তদন্ত) কাজী শহিদুল ইসলাম বলেন, দুর্গাবাটি গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলে মো: খায়রুল ইসলাম (১৮) স্থানীয় এক গৃহবধূকে নিয়মিত কুপ্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করতো। বৃহস্পতিবার গৃহকর্তা না থাকার সুযোগ নিয়ে রাতে ওই যুবক গৃহবধূর ঘরে ঢুকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে যুবকের গোপনাঙ্গ কর্তন করে ওই গৃহবধূ। দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় যুবক। পরে গৃহবধূ তার স্বামী শাশুড়িকে নিয়ে যুবকের বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় মামলা প্রদান করে। পুলিশ ঘটনার সতত্য যাচাই পুর্বক শুক্রবার খায়রুলকে গ্রেপ্তার করে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার সন্ধ্যায় মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালত কোর্ট ওয়ারেন্টের মাধ্যমে ওই যুবককে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

অন্যদিকে কালিগঞ্জে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সামাদ গাজী (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তিনি উপজেলার চাম্পাফুল এলাকার মৃত বেলায়েত গাজীর ছেলে।

কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, সামাদ গাজী দীর্ঘদিন যাবত একই এলাকার (৪২) বছর বয়সী এক গৃহবধূকে উক্ত্যক্ত করে আসছিল। এরই সূত্রধরে গত ২৬ নভেম্বর সামাদ গাজী ওই গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। এসময় গৃহবধূর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীকালে গৃহবধূ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করলে শুক্রবার ভোররাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সামাদ গাজীকে আটক করে। শুক্রবার আসামিকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন