চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

সফল অস্ত্রোপচার, শঙ্কামুক্ত অভিনেতা জাভেদ

দেশীয় চলচ্চিত্রের এক সময়ের পর্দা কাঁপানো অভিনেতা জাভেদের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে তিনি আশঙ্কামুক্ত। রবিবার (৫ এপ্রিল) আইসিইউ থেকে সাধারণ কেবিনে স্থানান্তর করা হবে বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

জাভেদের সর্বশেষ অবস্থার খোঁজ রাখছেন শিল্পী সমিতির দুই নেতা মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান। এই নৃত্যশিল্পী ও অভিনেতার বর্তমান অবস্থা জানিয়ে শনিবার সন্ধ্যার পর জায়েদ জানান, শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে আমরা জাভেদ ভাইয়ের সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখছি। সকালে তাঁর সফল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে তিনি নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

জায়েদ জানান, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। অস্ত্রোপচারের ২৪ ঘন্টা পর তাঁকে আইসিইউ থেকে সাধারণ কেবিনে স্থানান্তর করা হবে।

বিজ্ঞাপন

বেশ কয়েকদিন ধরেই মূত্রনালীর জটিলতায় আক্রান্ত ছিলেন জাভেদ। সম্প্রতি তার অবস্থা জটিল হলে বাংলাদেশ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। শুক্রবার রাতে তাঁকে দেখতে সেখানে ছুটে গিয়েছিলেন মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান। সেসময় তাঁর শারীরিক অবস্থা দেখে জাভেদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

ষাটের দশকে নৃত্যশিল্পী হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করলেও পরবর্তীতে অভিনয় শিল্পী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেন জাভেদ। ১৯৭০ থেকে ১৯৮৯ পর্যন্ত নায়কদের মধ্যে জাভেদ ছিলেন অসম্ভব জনপ্রিয়। বলা হয়, তার কোনো ছবিই ফ্লপ করেনি। নিজে নাচতেন ও নায়িকাদের নাচিয়ে পর্দা কাঁপিয়ে তুলতেন। মালকা বানু, অনেক দিন আগে, শাহাজাদা, রাজকুমারী চন্দ্রবান, সুলতানা ডাকু, আজো ভুলিনি, কাজল রেখা, সাহেব বিবি গোলাম, নিশান, বিজয়িনী সোনাভান, রূপের রাণী, চোরের রাজা, জালিম, চন্দন দ্বীপের রাজকন্যা, বাহারাম বাদশা, আলাদিন আলী বাবা এবং সিন্দাবাদ-এর মতো ছবি উল্লেখযোগ্য।