চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

লকডাউনে ভারতে অনলাইনে পড়ালেখা

মহামারী করোনাভাইরাসের হুমকিতে সবকিছু বন্ধ। মানুষের চলাচল স্তব্ধ। ঘরে থাকা, খাওয়া-ঘুমানো, আর স্বাস্থ্যসেবা ছাড়া আর যেন কোনো কাজ নেই এখন। কিন্তু তাই বলে কি ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা বন্ধ থাকবে?

এখন বিশ্ব্যাপী জোর দেওয়া হচ্ছে অনলাইন মাধ্যমে শিক্ষাকে। ভারতও এই ক্ষেত্রে বসে নেই। অনলাইন মাধ্যমে শিক্ষার ওপর জোর দিচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এনডিটিভি বলছে, লকডাউনের এই সময়ে কীভাবে শিক্ষাকে এগিয়ে নেওয়া যায় তার জন্য ভারত সরকার চালু করেছে ‘ভারত পড়ে অনলাইন অভিযান‘ নামে নতুন উদ্যোগ।

বিজ্ঞাপন

কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিওয়াল এই অভিযানের উদ্যোক্তা।

তিনি বলছেন, এই অভিযানের মাধ্যমে অনলাইন পড়াশোনাকে কীভাবে আরও উন্নত করা যা সে বিষয়ে দেশের সমস্ত মানুষের কাছে পরামর্শ চেয়েছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

রমেশ পোখরিওয়াল একটি টুইট করে লিখেছেন, আপনাদের সবার কাছে নিবেদন করছি, মন্ত্রণালয়ের অনলাইন শিক্ষা পদ্ধতিকে কীভাবে আরও বেশি উন্নত ও আকর্ষণীয় করা যায়, সেই বিষয়ে মতামত জানান। সবাই #ভারত পড়ে অনলাইন অভিযানের মাধ্যমে আমাকে বা মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের টুইটার অ্যাকাউন্টে পরামর্শ পাঠাতে পারেন।

টুইটারে তিনি বলেন, ১৬ এপ্রিল ২০২০ মধ্যে আপনারা আপনাদের মতামত পাঠাতে পারেন। টুইটারে নিজের মতামত পাঠানোর সময় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের টুইটার ও মন্ত্রীর অফিসের টুইটার হ্যান্ডেলকে ট্যাগ করতে ভুলবেন না। ছাত্ররা [email protected] ইমেইলের মাধ্যমে নিজেদের মতামত জানাতে পারেন।

মন্ত্রী জানান, তিনি ব্যক্তিগতভাবে প্রত্যেকটি মতামত বিবেচনা করবেন।

এই অভিযানের বিশেষ উদ্দেশ্য শিক্ষক এবং ছাত্রদের অংশগ্রহণ। এই অভিযানে ছাত্র এবং শিক্ষকদের যোগদান ভীষণভাবেই আশা করা হচ্ছে।

তিনি জানিয়েছেন, ছাত্ররা স্কুল, উচ্চবিদ্যালয়ে এখন পড়াশোনা করছেন। এই অবস্থায় অনলাইন প্ল্যাটফর্মে পড়াশোনার বিষয়ে তাদের অভিজ্ঞতা হয়েছে। এই বিষয়ে তারা মতামত দিতে পারবেন ভালো। তাছাড়াও যে সমস্ত শিক্ষক নিজেদের অভিজ্ঞতা এবং পারদর্শিতা শেয়ার করতে পারবেন, তাদের জন্যেও এই মাধ্যম খোলা রয়েছে।

বহু দেশে এখন অনলাইনে নিজেদের শিক্ষাকে প্রাধান্য দিচ্ছে। সাউথ কোরিয়া ইতোমধ্যে এই মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে। জাপান সম্প্রতি বিশ্বের প্রথম অনলাইন সমাবর্তনও আয়োজন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে।