চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

রেফারির সাহায্য পায় রিয়াল

হারের পর বলছে ভ্যালেন্সিয়া

রেফারির সাহায্য পায় রিয়াল— লা লিগায় লস ব্লাঙ্কোসদের বিরুদ্ধে এমন বিতর্ক পুরনো। মাঝেমাঝে কথা ওঠে, তুমুল বিতর্কও হয়। অনেকের দাবি, ভিএআর সিদ্ধান্তে সবসময় পেনাল্টি পায় স্প্যানিশ জায়ান্টরা, একই প্রেক্ষিতে যা অন্যরা পায় না। পুরনো সেই বিতর্ক অন্যভাবে টানল ভ্যালেন্সিয়া।

করিম বেনজেমা ও ভিনিসিয়াস জুনিয়রের জোড়া গোলে শনিবার রাতে ভ্যালেন্সিয়া ৪-১ ব্যবধানে হারলেও তাদের দৃষ্টি ম্যাচের একমাত্র পেনাল্টির দিকে। তারা বেনজেমার করা গোলটি নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিচ্ছে। গত ১৩ মাসে এভাবে ৩বার পেনাল্টি পেয়েছেন লস ব্লাঙ্কোসরা। ভ্যালেন্সিয়ার মতে, ডাকাতি করেছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

ঘরের মাঠে মূহমূহ আক্রমণেও যখন জালের দেখা পাচ্ছিল না রিয়াল, তখনই তাদের পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজে। ম্যাচের প্রথমার্ধের শেষদিকে বক্সের ভেতর কাসেমিরোকে ফাউল করেন ওমার আলদেরেটেকে। পেনাল্টির নির্দেশ দেন স্প্যানিশ রেফারি আলেজান্দ্রো হার্নান্দেজ।

বিজ্ঞাপন

পেনাল্টি নিয়ে মাঠেই বিরোধিতা করে ভ্যালেন্সিয়া খেলোয়াড়রা। রেফারি হার্নান্দেজ সিদ্ধান্তে অটল থাকেন। ভিএআরের সাহায্যও নেননি। সেটা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে লস চে’রা। ক্লাবের টুইটারে লিখেছে, ‘মাদ্রিদে আবারও ডাকাতি শুরু হয়েছে।’

রেফারি বিতর্ক বেশ উত্তাপ ছড়াচ্ছে স্পেনে। বার্সেলোনার সেন্টারব্যাক জেরার্ড পিকে ভ্যালেন্সিয়ার পোস্টে কমেন্ট করেছেন। ‘চুপ থাকুন’- এমন ইমোজি দিয়ে পিকে লিখেছেন, ‘খুব জোরে বলবেন না, জরিমানা হবে।’

বিতর্কিত সেই পেনাল্টিতে বল জালে জড়িয়ে দারুণ এক রেকর্ড গড়েন বেনজেমা। রিয়ালের হয়ে ৩০০ গোলের মাইলফলক ছোঁয়ার পর জাল খুঁজে নেন আরেকবার। ৩৪ বছর বয়সী ফ্রেঞ্চম্যান মাত্র চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে গড়েছেন এ রেকর্ড। ৫৮৪ ম্যাচে তার গোল ৩০১টি। ম্যাচপ্রতি তার গোল গড় ০.৫২।

রিয়ালের হয়ে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা পর্তুগিজ মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ৪২৮ ম্যাচ খেলে ৪৫০ গোল করে ধরাছোঁয়ার বাইরে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। সাবেক স্প্যানিশ তারকা রাউল গঞ্জালেস ৭৪১ ম্যাচে ৩২৩ গোল করেছেন।

বিজ্ঞাপন