চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যে পাঁচ গানে নেচে বলিউড মাতিয়েছিলেন জিনাত আমান

ষাটের দশকের নায়িকারা ছিলেন নিষ্পাপ, সরল, সুন্দর। কিন্তু সেই ইমেজ বদলে ফেললেন জিনাত আমান এসে। সনাতন ভারতীয় নারীর পরিবর্তে তিনি পর্দায় আসেন সাহসী, প্রতিবাদী, কখনো বখাটে, কখনো লাস্যময়ী হয়ে। তার গান ছাড়া কোনো পার্টি জমতো না তখন। শুধু শরীরী আবেদন নয়, অভিনয়গুণের জন্যও সিনেমাপ্রেমীদের হৃদয়ে যায়গা করে নেন খুব অল্প সময়ে।

আজ ১৯ নভেম্বর জিনাত আমানের ৬৯ তম জন্মদিন। এই ফিচারটি সাজানো হয়েছে জিনাত আমানের জনপ্রিয় পাঁচ গান নিয়ে।

বিজ্ঞাপন

দম মারো দম: ১৯৭১ সালের ‘হরে রাম হরে কৃষ্ণ’ ছবির এই গানটি গেয়েছেন আশা ভোঁসলে। গানটি লিখেছেন আনন্দ বকশি, সুর করেছেন রাহুল দেব বর্মণ। হিন্দি সিনেমার ইতিহাসে সবচেয়ে জনপ্রিয় গানগুলোর একটি এটি। এই গানের আবেদন এখনও ফুরায়নি।

চুরা লিয়া হ্যায় তুমনে: এক পার্টিতে জিনাত আমানকে গিটার বাজিয়ে গাইতে দেখা যায় এই রোমান্টিক গানটি। এই গানটি গেয়েছেন আশা ভোঁসলে ও মোহাম্মদ রফি।

অ্যাপ জ্যায়সা কোয়ি: পাকিস্তানের গায়িকা নাজিয়া হাসানের গাওয়া গান এটি। সুর করেছেন বিড্ডু। এই গানটি পরবর্তীতে বহুবার রিমিক্স হয়েছে।

লায়লা ও লায়লা: ‘কুরবানি’ ছবির হিট গান এটি। একটি ক্লাবে এই গানের তালে নাচতে দেখা যায় জিনাত আমানকে। গানটি গেয়েছেন অমিত কুমার ও কাঞ্চন।

ভিগি ভিগি রাতো মে: ১৯৭৪ সালের ‘আজনবি’ ছবির গান এটি। এই গানের দৃশ্যে জিনাত আমানের সঙ্গে ছিলেন রাজেশ খান্না। গানটি গেয়েছেন কিশোর কুমার ও লতা মঙ্গেশকর।