চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার বরিস জনসনের কাছে পাঠানো এক অভিনন্দন বার্তায় শেখ হাসিনা বলেন: ‘যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত হওয়ায় বাংলাদেশ সরকার এবং জনগণের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিবাদন গ্রহণ করবেন। দেশকে নতুন এক উচ্চতায় নিতে আপনার প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস রেখেই ব্রিটেনের জনগণ আপনাকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করেছেন।’

বিজ্ঞাপন

বরিস জনসনের ২০১৮ সালের বাংলাদেশ সফরের কথা উল্লেখ করে অভিনন্দন বার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন: যুক্তরাজ্য বিশ্বব্যাপী নেতৃত্বের মাধ্যমে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো নির্যাতনের জন্য মিয়ানমারকে জবাবদিহি করা এবং সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের সম্মানসহ, তাদের অধিকার ও নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিয়ে মিয়ানমারে স্থায়ীভাবে ফিরিয়ে নিতে কাজ করবে বলে আমরা আশা করি।

বিজ্ঞাপন

শেখ হাসিনা আরও বলেন: বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যকার সম্পর্ক পরিপক্ব, শক্তিশালী এবং পরীক্ষিত। এ সম্পর্ক গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা, সহিষ্ণুতা, বাকস্বাধীনতা, মানবাধিকার, আইনের শাসন, এবং পারস্পরিক স্বার্থের অংশীদারত্বের ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং টেকসই উন্নয়নে বাংলাদেশ সহযোগী হিসেবে কাজ করবে।

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে সহায়তা করা ও জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা স্মরণ করেন যুক্তরাজ্যের রক্ষণশীল দলের সাবেক প্রধানমন্ত্রী স্যার এডওয়ার্ড হিথকে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি এবং যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের বন্ধুত্বের ৫০ বছর উদযাপন করতে অধীর আগ্রহী বাংলাদেশ।

দুই দেশের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও কৌশলগত বিষয়ে বাংলাদেশ অংশীদারিত্বের সঙ্গে কাজ করে যেতে চায় বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Bellow Post-Green View