চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্ত ও মৃত্যু

আক্রান্ত শনাক্ত প্রায় ২ কোটি

ভারতে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন বা স্ট্রেইন আরও বিপজ্জনক হয়ে ওঠেছে, প্রচলিত টিকায় এতে সুরক্ষা পাওয়া দুরূহ হয়ে পড়েছে। শেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৩ লাখ ৭০ হাজার শনাক্ত হয়ে মোট করোনা সংক্রমিত রোগী প্রায় ২ কোটি (১ কোটি ৯৯ লাখ ১৯ হাজার ৭১৫) জন।

আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী সর্বোচ্চ মৃত্যও হয়েছে ভারতে। গত একদিনে ভারতে ৩ হাজার ৪২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর ফলে দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছ ২ লাখ ১৮ হাজার ৯৪৫ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৬২ লাখ ৮১ হাজার ৭৩৮ জন।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে নতুন এ ধরনের সংক্রমণে নাকাল অবস্থা ভারতের। দিনে দিনে বাড়ছে রোগী, বাড়ছে মৃত্যু। শ্মশানে দিন-রাত জ্বলছে চিতা।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটির নাম গবেষকেরা দিয়েছেন ‘বি-ওয়ান-সিক্সসেভেনটিন’। গত অক্টোবরে এটি প্রথম শনাক্ত হয়।

সেই সময় সবে ভারত করোনার প্রথম ধাক্কা সামাল দিয়ে উঠছে। তবে গত মার্চ থেকে দেশটিতে সংক্রমণ আবার বাড়তে শুরু করে। গবেষকরা বলছেন, দেশটিতে এটি করোনার দ্বিতীয় ঢেউ।

হাসপাতালে শয্যার সংকট, অক্সিজেন সংকটসহ নানা সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করছে। এর মধ্যেই উদ্বেগ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে ভারতে পরিবর্তিত হয়ে তৈরি হওয়া করোনাভাইরাসের নতুন এ ধরন (স্ট্রেইন)।

গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান প্রথমে। ভারতের পরে রয়েছে ব্রাজিল ও যুক্তরাষ্ট্র।

বিজ্ঞাপন