চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভাইয়ের পরিচালনায় কোনালের মিউজিক ভিডিও 

নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য নতুন গান প্রকাশ করেছেন ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ খ্যাত শিল্পী কোনাল। কড়া লকডাউনের কারণে নিজ বাসাতে গানটির ভিডিও শুটিং করেছেন তিনি। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে, কোনালের এ গানের ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন তার একমাত্র ভাই মনোময় মনির অর্ক

যিনি এই পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই প্রথমবার কোনো কিছু পরিচালনা করলেন। অনেকটা শখের বশে ও বোনের আবদারে কাজটি করেছেন বলে জানালেন অর্ক!

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার বিকেলে চ্যানেল আই অনলাইনকে কোনাল জানান, অর্ক বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রচুর সিনেমা, সিরিজ দেখে, গান শোনে। এসব নিয়ে তার সীমাহীন জ্ঞান। তাকে অনেকটা বোদ্ধা বলা যায়। পরিচালনার জন্য লাইট, ক্যামেরা, ফ্রেমিং সবকিছুতে অর্কের জ্ঞান অনেক ম্যাচিউরড। এজন্য অনেকটা জোর করে আমার গানটির ভিডিও বানাতে বলি তাকে। মাত্র তিন ঘণ্টাতে সে কাজটি করেছে।

গানটির ভিডিও নির্মাণ প্রসঙ্গে মনোময় মনির অর্কের সঙ্গে কথা হয়। তিনি জানান, নির্দেশনা দেয়ার পূর্ব কোনো অভিজ্ঞতা নেই তার। লেখাপড়া করেছেন জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে। বর্তমানে কোডিং ও কম্পিউটার গ্রাফিক্স, ওয়েব ডিজাইনিং শিখছেন। ভবিষ্যতে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজের ইচ্ছে রয়েছে তার। সঙ্গে লেখাপড়াতে আরও উচ্চতর ডিগ্রী নিতে চান অর্ক। 

ছোট থেকে সিনেমার খুঁটিনাটি নানা বিষয় নিয়ে প্রচুর আগ্রহ অর্কের। তিনি বলেন, আমার আগ্রহের জায়গা থেকে আপু কাজটি করিয়েছেন। লকডাউনের কারণে বাইরে শুটিং করতে পারিনি। যতটুকু সম্ভব ভালো করার চেষ্টা করেছি। খুবই মজা পেয়েছি। আমাদের ভাই বোনের বোঝাপড়া ও দুজনের পছন্দের মিলটা একই। সেই বোঝাপড়ার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে মিউজিক ভিডিওতে। এজন্য হয়তো কাজটি ভালো হয়েছে। কাজটির পর খুবই প্রাউড ফিল করছি। 

অর্ক বলেন, আরও পরে ইচ্ছে আছে দুই ভাই বোন মিলে একটি শর্টফিল্ম বা অন্যকিছু বানাবো। এই মিউজিক ভিডিওটি বানানোর পর ইচ্ছে এবং উৎসাহ দুটো আরও বেড়েছে। এ কাজটির মাধ্যমে অনেককিছু শিখতে পেরেছি যা আগে বুঝতাম না।

এদিকে, ব্যক্তিগত উদ্যোগে কোনাল ইউটিউবে যে গানগুলো প্রকাশ করেন সেগুলো তার শৈশব কৈশোরের প্রিয় গান, ভালোবাসা ও আবেগের মিশ্রণ জড়িয়ে থাকে বলে জানান। ওইসব গান শুনতে শুনতে গুনগুনিয়ে গাইতে গাইতে বড় হয়েছেন তিনি। এবার কোনাল যে গানটি করেছেন সেটি মূলত ফ্রান্সের গান ‘লা ভি অঁ রোজ, কিন্তু ইংরেজিতে বহুবার গেয়েছেন অনেকে।

তবে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পায় লুইস আর্মস্ট্রং এর কণ্ঠে। সেই ইংরেজি গানটি এবার গেয়েছেন কোনাল, সঙ্গে নিজে লিখেছেন কয়েকটি নতুন লাইন, যা গেয়েছেন বাংলায়। কোনাল বলেন, ওই গানটির সঙ্গে ফিল রেখে বাংলা অংশটুকু আমি সাজিয়েছি।

সবশেষে কোনাল জানান, ঈদে তার নিজ উদ্যোগে এ গান ভিডিও ছাড়াও মাবরুর রশিদ বান্নাহ, মিজানুর রহমান আরিয়ান, মাহমুদুর রহমান হিমি এবং মাহিদুল মহিমের মতো জনপ্রিয় চার নির্মাতার চারটি গান করেছেন। যেসব গানের সংগীতায়োজন করেছেন তরুণ কয়েকজন সংগীত পরিচালক। প্লেব্যাকে মনোযোগী কোনাল জানান, ইদানিং দুর্দান্ত সব নাটক হচ্ছে। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে গেলেও গানগুলো শুনতে পাই। নাটকের বাইরে এসব গান আলাদাভবে ইউটিউবে ছাড়া হয়। গানগুলো দর্শক ভীষণ পছন্দ করছেন। তাই প্লেব্যাকের মতো নাটকে গান করে বেশ স্বাচ্ছন্দ্য পাই।

বিজ্ঞাপন